মেইন ম্যেনু

গ্যাসপাইপে বিস্ফোরণ: দুই ছেলের পর বাবাও চলে গেলেন না ফেরার দেশে

দুই ছেলের পর এবার উত্তরার বাসায় গ্যাসের পাইপলাইন বিস্ফোরণে দগ্ধ মো. শাহনেওয়াজের মৃত্যু হয়েছে। শনিবার বিকেলে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (ঢামেক) মারা যান তিনি।

ঢামেকের বার্ন ইউনিটের চিকিৎসক অধ্যাপক ডা. সাজ্জাদ খন্দকার জানান, বিকেল সাড়ে পাঁচটায় শাহনেওয়াজকে হাই ডিপেনডেন্সি ইউনিট (এইচডিইউ) থেকে আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়। এর পর সন্ধ্যা পৌনে ৬টার দিকে তিনি মারা যান। তার শরীরের ৯৫ শতাংশ পুড়ে গিয়েছিল।

নিহত মো. শাহনেওয়াজ আমেরিকান দূতাবাসের মেইনটেন্যান্স ইঞ্জিনিয়ার ছিলেন।

রান্নাঘরের গ্যাসের পাইপলাইন বিস্ফোরণের ঘটনায় শুক্রবার ভোরেই গুরুতর দগ্ধ অবস্থায় মো. শাহনেওয়াজ (৫০), স্ত্রী সুমাইয়া বেগম (৪০), ছেলে শালিল (১৫) ও জারানকে (১৪ মাস) ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ সময় শাহনেওয়াজের ছেলে জারিফের (১১) হাত ও পায়ের বিভিন্ন অংশ পুড়ে যায়।

অগ্নিকাণ্ডের দিন বিকেলে শালিল ও রাতে জারান মারা যায়। শালিলের ৮৮ শতাংশ, জারানের ৭৪ শতাংশ পুড়ে গিয়েছিল বলে জানান ঢামেকের বার্ন ইউনিটের আবাসিক চিকিৎসক পার্থ শংকর পাল।

পার্থ জানান, মো. শাহনেওয়াজের স্ত্রী সুমাইয়া বেগমের অবস্থাও আশঙ্কাজনক। তার শরীরের ৯০ শতাংশ পুড়ে গেছে।






মন্তব্য চালু নেই