মেইন ম্যেনু

ঘাটতি মেটাতে ধার করা হবে ৬১ হাজার কোটি টাকা

প্রায় লাখ কোটি টাকার ঘাটতি মেটাতে নতুন ২০১৬-১৭ অর্থ বছরের বাজেটে অভ্যন্তরীণ উৎস থেকে ৬১ হাজার ৫৪৮ কোটি টাকা ধার করতে হবে সরকারকে।

এই অংক বিদায়ী ২০১৫-১৬ অর্থবছরের মূল বাজেটের চেয়ে ৯ শতাংশ এবং সংশোধিত বাজেটের চেয়ে ১ শতাংশ কম।

এর মধ্যে ব্যাংক ব্যবস্থা থেকে ৩৯ হাজার কোটি টাকা এবং সঞ্চয়পত্র থেকে ১৯ হাজার ৬১০ কোটি টাকা ঋণ নেওয়ার পরিকল্পনার কথা নতুন বাজেটে তুলে ধরেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

বৃহস্পতিবার বিকেলে জাতীয় সংসদে ২০১৬-১৭ অর্থবছরের বাজেট প্রস্তাব উপস্থাপন করেন অর্থমন্ত্রী।

উন্নয়ন ও অনুন্নয়ন খাত মিলিয়ে নতুন অর্থবছরে ৩ লাখ ৪০ হাজার ৬০৫ কোটি টাকা ব্যয়ের হিসাব ধরেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। এই খরচ মেটাতে রাজস্ব হিসেবে ২ লাখ ৪২ হাজার ৭৫২ কোটি টাকা আদায়ের পরিকল্পনা দেওয়া হয়েছে প্রস্তাবিত বাজেটে। আয় ও ব্যয়ের এই হিসাবে সামগ্রিক ঘাটতি থাকছে ৯৭ হাজার ৮৫৩ কোটি টাকা, যা জিডিপির ৫ শতাংশ।

নতুন বাজেটে ব্যাংক থেকে যে ঋণ হবে বলে ধরা হয়েছে, তা বিদায়ী ২০১৫-১৬ অর্থবছরের সংশোধিত বাজেটের চেয়ে ২৩ শতাংশ বেশি। আর মূল বাজেটের চেয়ে ১ শতাংশ বেশি।

নতুন বাজেটে সঞ্চয়পত্র থেকে ঋণের যে হিসাব দেখানো হয়েছে তার পরিমাণ বিদায়ী মূল বাজেটের চেয়ে ৩১ শতাংশ বেশি হলেও সংশোধিত বাজেটের চেয়ে ৩০ শতাংশ কম। গত অর্থ বছর অর্থাৎ ২০১৫-১৬ অর্থবছরের মূল বাজেটে অভ্যন্তরীন উৎস থেকে ৫৬ হাজার ৫২৩ কোটি টাকা ঋণ নেওয়ার পরিকল্পনা করেছিলেন অর্থমন্ত্রী। পরবর্তী সময়ে সংশোধিত বাজেটে তা বাড়িয়ে ৬২ হাজার ১৭৫ কোটি টাকা করা হয়।






মন্তব্য চালু নেই