মেইন ম্যেনু

ঘাটাইলে জমে উঠেছে কোরবানীর পশুর হাট

ঈদের দিন ঘনিয়ে আসার সাথে সাথেই সারাদেশের মতো টাঙ্গাইল জেলার ঘাটাইলে জমে উঠেছে কোরবানীর পশুর হাট। পশু ক্রয় বিক্রয়ের জন্য কোরবানীর পশুর হাটগুলোতে ভির জমাচ্ছেন ক্রেতারা।

ঘাটাইল উপজেলার ১৫ টি স্থানে বসেছে কোরবানীর পশুর হাট। এর মধ্যে উল্লেখ্যযোগ্য হাটগুলো হচ্ছে ঘাটাইল সদর, ছনখোলা, পাকুটিয়া, ধলাপাড়া, কুরালিয়া, সাগরদিঘী। উপজেলার প্রতিটি পশুর হাটে ঘুড়ে ফিরে দেখা গেছে হাটগুলোতে বিভিন্ন প্রজাতির গরুর পাশাপাশি ছাগলও কেনাবেচা হচ্ছে ভালই।

ঘাটাইলের পাকুটিয়া বাজারে গরু কিনতে আসা আব্দুস সালাম জানান, গরু মোটাতাজাকরণের জন্য বিষাক্ত ইনজেকশন ব্যবহার করার খবর বিভিন্ন পত্র পত্র পত্রিকায় প্রকাশ হওয়ায় মাঝারি ও ছোট আকারের গরুর বেচাকেনার চাহিদা বেশী। কিন্তু গত বছরের তুলনায় এবার গরুর দাম অনেক বেশি। আশেপাশের উপজেলাতে বিদেশি গরু আসার কথা শুনলেও আমাদের এই হাটে বিদেশি গরু নেই বললেই চলে।

ঘাটাইল সদর হাটে গরু বিক্রি করতে আসা মো. আব্দুল লতিফ জানান, গতবছরের তুলনায় এবার গরুর দাম অনেকটা কম। কিছুদিন আগে আমার গরুটি ৮০ হাজার দাম করলেও এখন মাত্র ৬৫ হাজার টাকা দাম করতেছে। হাটে বিদেশি গরু অনেক কম এসেছে তাবুও কেন যেন দেশি গরুর দাম অনেক কম।

ঘাটাইল থানায় উপপরিদর্শক (এস আই) মোঃ মুনসুপ জানান , কোরবানীর পশুর হাটগুলোতে প্রয়োজনীয় নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে। যাতে ছিনতাই ও চাদাবাজিসহ কোন প্রকার অপ্রতিকর ঘটনা না ঘটে। এবং ক্রেতা-বিক্রেতারা কোরবানীর পশু নিয়ে নিরাপদে যেন বাড়ি ফিরতে পারে।






মন্তব্য চালু নেই