মেইন ম্যেনু

ঘাটাইল সেনানিবাসে সশস্ত্র বাহিনী দিবস পালিত

কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী বলেছেন, ১৯৭১ সালে জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আহবানে সাড়া দিয়ে এদেশের বীর সন্তানেরা মুক্তিযুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়ে।

মুক্তিযুদ্ধকে বেগবান করার জন্য ২১ নভেম্বর ১৯৭১ সালের এই দিনে আমাদের সশস্ত্র বাহিনী, বীর মু্িক্তযোদ্ধা আধা-সামরিক বাহিনীর সদস্যগণ ও দেশ প্রেমিক জনতা সমন্বিতভাবে যুদ্ধ পরিচালনার কার্যক্রম শুরু করে এবং সমন্বিত যুদ্ধ পরিচালনা করে ১৬ ডিসেম্বর ১৯৭১ সালে আমাদের মহান বিজয় অর্জিত হয়।

আর সেজন্যই মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় সমুজ্জল বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনী দিবস। এই দিনটি সশস্ত্র বাহিনীর প্রত্যেক সদস্যের নিকট অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ ও স্বরণীয়।

তিনি শনিবার বিকেলে টাঙ্গাইলের ঘাটাইল শহীদ সালাহউদ্দিন সেনানিবাসে সশস্ত্র বাহিনী দিবস উপলক্ষে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় একথা বলেন।

অনুষ্ঠানে ২১ জন খেতাবপ্রাপ্ত ম্ুিক্তযোদ্ধাকে ও তার পরিবারবর্গের মাঝে স্মারক উপহার তুলে দেয়া হয়। এর আগে বিশাল আকৃতির একটি কেক কেটে এ দিবসের উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি কৃষি মন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী। এ সময় স্বাগত বক্তৃতা করেন ১৯ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি ও ঘাটাইল এরিয়া কমান্ডার ফিরোজ হাসান।

ঘাটাইল সেনানিবাসের এএমসিএন্ড এস অফিসার্স মেস মাঠে আয়োজিত অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন খন্দকার আবদুল বাতেন এমপি, ছানোয়ার হোসেন এমপি, অনুপম শাহজাহান জয় এমপি, বেগম মনোয়ারা বেগম এমপি, টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক মাহবুব হোসেন ও পুলিশ সুপার সালেহ মোহাম্মদ তানভীরসহ সেনাবাহিনীর উর্দ্ধতন কর্মকর্তাবৃন্দ।






মন্তব্য চালু নেই