মেইন ম্যেনু

চকরিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনা নিহত ৪, দগ্ধ ১৫

কক্সবাজারের চকরিয়ায় লবণ বোঝাই মিনিট্রাক ও পর্যটকবাহী মাইক্রোবাসের সংঘর্ষে নারী-শিশুসহ চারজন নিহত হয়েছেন। এসময় মাইক্রোবাসের গ্যাসের সিলিন্ডার বিস্ফোরণে দগ্ধ হয়েছেন অন্তত ১৫জন। ২৯ সেপ্টেম্বর সোমবার দুপুর দেড়টায় কক্সবাজার চট্টগ্রাম মহাসড়কের চকরিয়ার হারবাং গয়ালমারা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, সোমবার দুপুর দেড়টার দিকে চট্টগ্রাম থেকে কক্সবাজার অভিমুখি যাত্রীবাহী একটি হাইয়েছ গাড়ী নং (চট্টমেট্রো চ- ১১-১৭২৫) মহাসড়কের চকরিয়ার হারবাং গয়ালমারা এলাকায় পৌছলে চট্টগ্রাম অভিমুখি লবণ বোঝাই একটি মিনিট্রাক (চট্টমেট্রো-ন ১১-১৯৫২) গাড়ীর সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এসময় হাইয়েছ গাড়ীর গ্যাসের সিলিন্ডার বিস্ফোরিত হয়ে গাড়ীতে আগুন ধরে যায়। গ্যাসের আগুনে দগ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই ৩জন এবং হাসপাতালে নেওয়ার পথে আরো একজন সহ ৪জন নিহত হয়। এসময় গাড়ীর ফিস্ফোরিত গ্যাসের আগুনে দগ্ধ হয়েছেন নারী ও শিশুসহ আরো ১৫জন যাত্রী। আহতদের চকরিয়া সরকারী হাসপাতালে ও চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নিহতদের মধ্যে ১ জনের পরিচয় জানা গেছে, তিনি হলেন চট্টগ্রামের সাতকানিয়া উপজেলার তমাল তালুকদার (৫০)। আহত ১৫ জনের মধ্যে ৭ জনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং ৮ জনকে চকরিয়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রভাষ চন্দ্র ধর জানান, ফায়ার সার্ভিসের সহায়তায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে। মরদেহ ডুলহাজরা হাইওয়ের থানায় রাখা হয়েছে।

চিরিঙ্গা হাইওয়ে পুলিশের ইনচার্জ ফয়েজ জানান, বেলা দেড়টার দিকে চট্টগ্রাম কক্সবাজার মহাসড়কের হারবাংএর গয়ালমারা এলাকায় ফায়ার সার্ভিসের সহযোগীতায় সড়ক দূর্ঘটনায় পতিত গাড়ী দুটি উদ্ধার করে নিয়ে আসা হয়েছে। তিনি আরও জানান, নারী-শিশু সহ ঘটনাস্থলে ৩জন নিহত হয়েছে। তবে এখনো লাশের পরিচয় জানাযায়নি। লাশ ময়না তদন্তের জন্য কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই