মেইন ম্যেনু

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে জাতীয় শোক দিবস পালিত

১৫ই আগস্ট স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি,হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪০তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ছিল দিনব্যাপী কর্মসূচী। জাতির পিতার স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে সকাল থেকেই রাজনৈতিক,সামাজিক,সাংস্কৃতিক ছাত্র সংগঠনের নেতা-কর্মীরা নবনির্মিত “বঙ্গবন্ধু চত্বরের” সামনে জমায়েত হতে থাকেন।

“বঙ্গবন্ধু চত্বরে” আলোচনা সভার আয়োজন করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ড.ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে উক্ত আলোচনা সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন অনুষদের ডীন,শিক্ষক নেতৃবৃন্দ,বিভিন্ন শ্রেণীর কর্মকর্তা- কর্মচারীগন।
আলোচনা সভায় বক্তারা বঙ্গবন্ধুর ঘটনাবহুল জীবনের উপর আলোকপাত করেন।এসময় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে “বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ” শীর্ষক একটি স্টাডি সেন্টার গঠনের কথা আলোচনায় আসে।জাতির পিতার স্মৃতির প্রতি

শ্রদ্ধা জানিয়ে চবিতে “বঙ্গবন্ধু চত্বর” নির্মাণে মাননীয় উপাচার্যের সাহসী ভূমিকার ভূয়সী প্রশংসা করেন ও তাঁর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন আলোচকরা।বিশ্ববিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধু চত্বর নির্মাণকে বহু ছাত্র-শিক্ষকের প্রাণের দাবী বলে উল্লেখ করা হয়।আলোচনা সভায় ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধুর জীবন ইতিহাস নিয়ে লিফলেট বিতরন করা হয়।

বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের মাসব্যাপী কর্মসূচীর অংশ হিসেবে ছিল দোয়া ও মিলাদ মাহফিল।বিকেলে স্টেশন মসজিদে জাতির পিতার আত্নার শান্তি কামনা করে দোয়া করে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ।

শোক দিবসের প্রথম প্রহরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান চবি ছাত্রলীগের নতুন অভিভাবক সভাপতি মো; আলমগীর টিপু এবং সাধারন সম্পাদক ফযলে রাব্বি সুজন।

জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের দিনব্যাপী কর্মসূচীতে আরো ছিল বঙ্গবন্ধুর জীবনীর উপর বিশেষ প্রামান্য চিত্র প্রদর্শন,বিভিন্ন হলে দেয়ালিকা প্রকাশ ইত্যাদি।






মন্তব্য চালু নেই