মেইন ম্যেনু

চাকরিতে বেতন না বাড়লে কী করবেন?

ধরুন আপনি একটি প্রতিষ্ঠানে দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে কাজ করছেন। এরপর মূল্যায়নের পর আপনার বেতন বৃদ্ধি পাবে, এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু যদি বেতন নামমাত্র বাড়ে তাহলে কী করবেন? এমনই এক পরিস্থিতির মুখোমুখি হয়েছেন বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের এক নারী কর্মী। তিনি দীর্ঘ পাঁচ বছর কাজ করার পর মাত্র দুই শতাংশ বেতন বৃদ্ধি করতে পেরেছেন। এ ঘটনায় তিনি মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েন এবং এতে তার করণীয় কী রয়েছে, তা নিয়ে চিন্তাভাবনা শুরু করেন। তার কী চাকরি ছাড়া উচিত নাকি ওই প্রতিষ্ঠানেই বেতন বাড়ানোর চেষ্টা করা উচিত? এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে টাইমস অব ইন্ডিয়া।

প্রতিষ্ঠানের মূল্যায়নজনিত ও বেতন বৃদ্ধির এ সমস্যা সে নারীর একার নয়। বহু প্রতিষ্ঠানেই কর্মীরা প্রতিনিয়ত এ ধরনের সমস্যার মুখোমুখি হচ্ছেন। এ সমস্যায় কী করা উচিত তা নিয়ে বিশেষজ্ঞরা কী বলেন?

বেতন বৃদ্ধির সমস্যা মূলত মূল্যায়নে ভালো ফলাফল না আসার কারণেই ঘটে বলে জানান বিশেষজ্ঞরা। এর ফলে বেতন বৃদ্ধি করতে সমস্যা হয়। তবে এটি আপনার বর্তমান যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা প্রত্যাখ্যান করার মতো বিষয় নয়। আর তাই বিষয়টি নেতিবাচক দৃষ্টিতে না দেখে বরং ভালো দৃষ্টিতেই দেখা উচিত।

এ বিষয়টিকে নতুন সুযোগ তৈরির জন্যও ব্যবহার করা যায়। বহু মানুষই এ ধরনের পরিস্থিতিকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়ে প্রতিষ্ঠানে নিজের অবস্থানকে সংহত করতে সক্ষম হয়েছেন। তাই ভালোভাবে কাজ করলে এ বিষয়টি আপনার ক্যারিয়ার জীবনে নতুন দিগন্ত খুলে দিতে পারে।

এ বিষয়ে নিউগেন সফটওয়্যারের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট, (এইচআর) এস জে রাজ বলেন, ‘অধিকাংশ পেশাজীবীই কোনো একপর্যায়ে তাদের ক্যারিয়ারে এ পরিস্থিতির মুখোমুখি হন। আর এ পরিস্থিতিতে তারা তাদের প্রত্যাশামতো বেতন বৃদ্ধি ও অন্যান্য মূল্যায়ন পান না। এমনকি তা প্রত্যাশার কাছাকাছি নাও হতে পারে। এ ক্ষেত্রে তারা কতদিন ধরে প্রতিষ্ঠানে কাজ করছেন কিংবা কতটা নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করছেন তা ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষের নজরে নাও আসতে পারে। এতে প্রাথমিকভাবে বিস্ময়, হতাশা কিংবা কোনো কোনো ক্ষেত্রে আরও বড় কোনো ঘটনা ঘটতে পারে।’

তাহলে এ সমস্যার সমাধান কোথায়? এ প্রসঙ্গে একজন শীর্ষস্থানীয় ব্যবস্থাপক বলেন, ‘আমাদের উচিত সমস্যার সমাধানের চেষ্টা করার আগে সমস্যাটি ঠিক কী তা খুঁজে দেখা। এ সমস্যা কী কর্মীর পারফরমেন্স সঠিকভাবে লিপিবদ্ধ না করার কারণে ঘটেছে? তিনি কি তার মতামতে সঠিকভাবে তথ্য সংগ্রহ করেননি?’

তিনি বলেন, বিষয়টি যদি সঠিকভাবে পারফরমেন্স তথ্য না ওঠার কারণে ঘটে তাহলে বসের সঙ্গে বিষয়টি আলোচনা করা যেতেই পারে। এ ক্ষেত্রে নিজের অর্জন ও অন্যান্য যোগ্যতাগুলোকে জানিয়ে নতুন করে আবেদন করা যেতে পারে।

আরেকটি বিষয় হতে পারে যে, প্রতিষ্ঠানের কর্তৃপক্ষের ধারণা হয়েছে, তিনি ইতিমধ্যেই যোগ্যতার চেয়ে ভালো বেতন পাচ্ছেন। সে ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠান থেকে তাকে ভালো সুযোগ-সুবিধা নাও দিতে পারে। তবে এ ধরনের পরিস্থিতিতে একটি সহজ উপায় হতে পারে ভালো সুযোগ-সুবিধাসম্পন্ন অন্য কোনো প্রতিষ্ঠানে চাকরির চেষ্টা করা।

তবে চাকরি ছাড়ার আগে যেকোনো কর্মীরই উচিত বিষয়টি বুঝে দেখা যে, ঠিক কী কারণে তার বেতন বৃদ্ধি হয়নি। এমন হতে পারে যে, তার পারফরমেন্সের রিপোর্টটি সঠিকভাবে তৈরি হয়নি। অনেক সময় সঠিকভাবে বিষয়টি তুলে ধরতে পারলে সমস্যার সমাধান হয়ে যায়। এ ছাড়া অনেকের একবার সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধি না পেলেও পরবর্তীতে তা বৃদ্ধি করা হয়। এ ধরনের পরিস্থিতিতে ধৈর্য ধরার প্রয়োজনীয়তা রয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই