মেইন ম্যেনু

চাচা ওরা আমাদের মেরে ফেলবে, বাঁচাও

অস্ত্রধারীরে হাতে জিম্মিদের মধ্যে আছেন ইঞ্জিনিয়ার হাসনাত করিম, তার স্ত্রী ও দুই সন্তান। শুক্রবার সন্ধ্যায় তারা সেখানে খেতে গিয়ে বিপদে পড়েছেন।

হাসনাতের চাচা হান্নান করিম জানান, রাত সাড়ে ১০টার দিকে ভাতিজা তাকে ফোন করেন। হাসনাত বলেন, চাচা, আমারা জিম্মি হয়ে রয়েছি। ওরা আমাদের মেরে ফেলবে। যেভাবেই হোক আমাদের উদ্ধার করো!

গুলশান-২ এর হলি আর্টিসান নামের ওই রেস্টুরেন্টে জিম্মি হয়ে আছে একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী মালিহা ও তার কয়েকজন বান্ধবী। শুক্রবার রাত সাড়ে ১১টায় ওই ছাত্রীর বাবা বোরহান জানান, তার মেয়ে মালিহা নর্থ-সাউথ ইউনিভার্সিটির ছাত্রী। সন্ধ্যায় ৪/৫ জন বান্ধবীকে নিয়ে সে এই রেস্টুরেন্টে যায়। ফোনে মেয়ের সাথে কথা হয়েছে। বলেছে, ‘বাবা আমরা বিপদে, আমাদের বাঁচাও!

শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে ঘটনার সূত্রপাত। সেখানে কয়েকজন বিদেশি নাগরিক আছেন বলে জানা গেছে। পুলিশ পুরো এলাকা ঘিরে রেখেছে।

গুলশান জোনের পুলিশের ডিসি মোস্তাক আহমেদ বলেন, গুলশান-২ এর ৭৯ নম্বর রোডের হলি আর্টিসান বেকারি নামের একটি রেস্টুরেন্টের ভেতর থেকে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়ে সন্ত্রাসীরা। সন্ত্রাসীদের গুলিতে দুই পুলিশ কর্মকর্তা নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন প্রচুর সংখ্যক পুলিশ সদস্য।






মন্তব্য চালু নেই