মেইন ম্যেনু

চার দিনে সড়কে ঝরল ৫৭ প্রাণ

ঈদ-পরবর্তী সময়ে দেশের সড়কগুলোতে যেন মৃত্যুর মিছিল নেমেছে। চতুর্থ দিন পর্যন্ত দেশের বিভিন্ন স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ গেছে ৫৭ জনের। আহত হয়েছে শতাধিক মানুষ। মৃত্যুর এই মিছিলে শনিবার যোগ হয়েছে ২২ প্রাণ। আর শুক্রবার একই পরিবারের আটজনসহ মারা গেছে ২০ জন।

শনিবার সবচেয়ে বেশি প্রাণহানি হয়েছে টাঙ্গাইলে। সেখানে তিনটি দুর্ঘটনায় মারা গেছে ১১। এ ছাড়া সিলেটে চারজন, ঝিনাইদহ, ফরিদপুর, রাজশাহী, শেরপুর, আশুলিয়া, বাগেরহাট ও কুমিল্লায় একজন করে নিহত হয়েছে।

প্রতি বছরই ঈদযাত্রা ও কর্মস্থলে ফেরার পথে আশঙ্কাজনক হারে বেড়ে যায় সড়ক দুর্ঘটনা। এবার বাড়ি যাওয়ার পথে তেমন বড় প্রাণহানির ঘটনা না ঘটলেও ফিরতি পথে একের পর এক ঘটছে দুর্ঘটনা। ঈদের আগে ৩২ জনের মতো প্রাণহানি ঘটে এবার।

ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে ঝরল ১১ প্রাণ

ঢাকা-টাঙ্গাইল ও টাঙ্গাইল-ময়মনসিংহ মহাসড়কে পৃথক তিনটি দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন ১১ জন। আহত হয়েছেন কমপক্ষে ৪০ জন।

শনিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে টাঙ্গাইল-ময়মনসিংহ মহাসড়কের মধুপুর উপজেলার নরকোনা নামক স্থানে বাস ও ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে ৪ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ২১ জন। আহতদের মধুপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

এর আগে সকালে মির্জাপুর ও কালিহাতিতে দুই দুর্ঘটনায় নারী-শিশুসহ সাতজন নিহত হন। এ নিয়ে জেলায় মোট ১১ জনের প্রাণ ঝরলো শনিবার।

শনিবার সকালে মির্জাপুরের ইছাইল নামক স্থানে যাত্রীবাহী বাস ও ইটভর্তি ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে নারী ও শিশুসহ পাঁচজন এবং কালিহাতী উপজেলার আনালিয়া বাড়ি নামক স্থানে প্রাইভেটকারের ধাক্কায় মোটরসাইকেলের চালকসহ দুজন নিহত হয়েছেন।

অপর দুর্ঘটনাটি ঘটে বঙ্গবন্ধু সেতু সংযোগ সড়কের কালিহাতী উপজেলার আনালিয়া বাড়ি নামক স্থানে। সেখানে প্রাইভেটকারের ধাক্কায় মোটরসাইকেলের চালকসহ দুজন নিহত হন।

ঝিনাইদহে বাসের ধাক্কায় পুলিশ কর্মকর্তার স্ত্রী নিহত

ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার গাড়াগঞ্জ বাজারে বাসের ধাক্কায় রূপালী খাতুন (৩৫) নামে এক পুলিশ কর্মকর্তার স্ত্রী নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) হামিদুল ইসলাম (৪০) ও তার মেয়ে হালিমা খাতুন (৪)।

শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টার দিকে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে রুপালী খাতুন মারা যান।

ঝিনাইদহ সহকারী পুলিশ সুপার গোপিনাথ কানজিলাল জানান, এসআই হামিদুল তার স্ত্রী ও মেয়ে হালিমাকে নিয়ে মোটরসাইকেল যোগে ঝিনাইদহ থেকে কুষ্টিয়ার দিকে যাচ্ছিলেন। পথে গাড়াগঞ্জ বাজার এলাকায় পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে ‘গ্রিন লাইন’ নামের একটি যাত্রীবাহী বাস মোটরসাইকেলটিকে ধাক্কা দেয়। এতে রাস্তার পাশে ছিটকে পড়ে এসআই হামিদুল ইসলাম, তার ও শিশু কন্যা হালিমা খাতুন গুরুতর আহত হন। পরে স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রূপালী খাতুন মারা যান।

এসআই হামিদুল ইসলাম চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন এলাকায় কর্মরত ছিলেন।

বাগেরহাটে বাস-কার সংঘর্ষে কারারক্ষী নিহত

শনিবার বিকালে বাগেরহাটের ফকিরহাটে যাত্রীবাহী বাস ও প্রাইভেটকারের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাইভেটকারের চালক কারারক্ষী আহসান (৩০) নিহত হয়েছেন। গোপালগঞ্জ জেলা কারাগারের জেলারসহ আহত হয়েছেন দুজন।

বাগেরহাট-মাওয়া মহাসড়কের কানারপুকুর তৈয়বের বটতলা এলাকায় সংঘটিত এ দুর্ঘটনায় আহত গোপালগঞ্জ জেলা কারাগারের জেলার আবু সায়েমকে (৪৮) খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং কারারক্ষী জিয়াউলকে (৩২) ফকিরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

নিহত কারারক্ষী গাড়িচালক আহসানের বাড়ি মাদারীপুর জেলার কালকিনি উপজেলায়।

সিলেটে বাস খাদে পড়ে নিহত ৪

সিলেট-জকিগঞ্জ সড়কের গোলাপগঞ্জের কায়স্থগ্রামে যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে শিশুসহ চারজন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরও ১৫ জন।

শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে জকিগঞ্জ থেকে ছেড়ে আসা সিলেটমুখী বাসটি কায়স্থ গ্রামে এসে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে যায় এতে ২ শিশু ও ২ পুরুষ নিহত হয়।

গোলাপগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) মীর আব্দুন নাসের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। বলেন, দুর্ঘটনার পর হতাহতদের উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানোর পর সেখানে ২ শিশুসহ চারজনের মৃত্যু হয়েছে।

কুমিল্লায় প্রাইভেট কারের ধাক্কায় নিহত ১

কুমিল্লায় প্রাইভেট কারের ধাক্কায় আবদুল বারিক (৩৫) নামে এক মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। শনিবার সন্ধ্যায় ঢাকা-চট্টগাম মহাসড়কের বুড়িচং উপজেলার কালাকচুয়ায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত আবদুল বারেক কুমিল্লা নগরীর নানুয়ার দিঘীর পাড় এলাকার মো. সোলাইমানের ছেলে।

পুলিশ সূত্র জানায়, সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় আবদুল বারেক কালাকচুয়ায় মদিনা তেলের পাম্প থেকে মোটরসাইকেলে তেল নিয়ে যাওয়ার সময় তাকে চট্টগ্রামগামী একটি প্রাইভেট কার ধাক্কা দেয়। পরে তাকে উদ্ধার করে কুমিল্লা ময়নামতি ক্লিনিকে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ফরিদপুরে বাসচাপায় পথচারী নিহত

ফরিদপুরে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে বাসচাপায় জয়নাল শেখ নামে এক পথচারী নিহত হয়েছেন। সদর উপজেলার মল্লিকপুর এলাকায় শনিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সার্জেন্ট ওয়াহিদুল ইসলাম জানান, দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ঢাকা থেকে কুষ্টিয়াগামী এমএম পরিবহনের একটি বাস পথচারী জয়নালকে চাপা দিলে তিনি ঘটনাস্থলেই মারা যান। বাসটি আটক করা হলেও চালক পালিয়ে গেছে।

রাজশাহীতে অটোরিকশা উল্টে শিশু শ্রমিক নিহত

রাজশাহী মহানগরীতে অটোরিকশা উল্টে গ্যারেজের এক শিশু শ্রমিক নিহত হয়েছে। শনিবার দুপুর ১টার দিকে নগরীর সপুরা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত শিশুর নাম হাসান আলী। সে নগরীর খ্রিস্টানপাড়া মালদা কলোনি এলাকার শহিদুল ইসলামের ছেলে।

নগরীর বোয়ালিয়া থানার ওসি (তদন্ত) সেলিম বাদশা জানান, হাসান আলী শহরের সপুরা এলাকায় কামাল হোসেন নামে এক ব্যক্তির অটোরিকশা গ্যারেজে কাজ করত। দুপুরে সে গ্যারেজের সামনে একটি অটোরিকশা চালিয়ে দেখছিল। এ সময় নিয়ন্ত্রণ হারালে অটোরিকশাটি উল্টে যায়। এতে সে অটোরিকশার নিচে চাপা পড়ে গুরুতর আহত হয়। এ সময় তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

শেরপুরে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় বৃদ্ধ নিহত

শেরপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় ষাটোর্ধ্ব এক বৃদ্ধ নিহত হন। শনিবার সকালে সাড়ে ১০টার দিকে ঝিনাইগাতী উপজেলার গাজীকুড়ায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত বৃদ্ধের নাম ফকির মাহমুদ। তিনি নকলকুড়া ইউনিয়নের মানিকুড়া গ্রামের বাসিন্দা।

ঝিনাইগাতী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান জানান, সকালে গজারীকুড়া নামক জায়গায় ব্যাটারি চালিত রিকশায় ওঠার সময় একটি দ্রুতগতির মোটরসাইকেল ফকির মাহমুদকে ধাক্কা দিলে তিনি গুরুতর আহত হন। এ সময় আশপাশের লোকজন এবং মোটরসাইকেলচালক মিলে ফকির মাহমুদকে ঝিনাইগাতী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। তবে সেখানে নেওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক ফকির মাহমুদকে মৃত ঘোষণা করেন।

আশুলিয়ায় বাসচাপায় নিহত ১

শনিবার সকাল দশটার দিকে নবীনগর-চন্দ্রা সড়কের আশুলিয়া থানাধীন ‘পল্লীবিদ্যুৎ’ বাসস্ট্যান্ড এলাকায় বাস চাপায় সিরাজুল ইসলাম (৬০) নামের এক ব্যক্তি নিহত হন। নিহতের বাড়ি মুন্সীগঞ্জে।

জানা গেছে, কয়েক দিন আগে সিরাজুল পল্লীবিদ্যুৎ এলাকায় তার মেয়ের বাসায় বেড়াতে আসেন। এদিন সকালে তিনি বাইপাইল থেকে মাছ কিনে ফেরার পথে রাস্তা পার হওয়ার সময় ‘নাবিল’ পরিবহনের একটি বাস তাকে চাপা দিয়ে পালিয়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।






মন্তব্য চালু নেই