মেইন ম্যেনু

চার বছরে ৪৩ হাজার বার ধর্ষণের শিকার কিশোরী

বারো বছর বয়সে কার্লা জ্যাসিন্টো প্রেমে পড়েন তাঁর থেকে বয়সে কিছু মাত্র বড় এক যুবকের। তাঁর মনে হয়েছিল নিজের স্বপ্নের পুরুষের সঙ্গে দেখা হয়ে গিয়েছে তাঁর। কিন্তু অল্প কয়েকদিনের মধ্যেই ভুল ভাঙে কিশোরীর। তাঁকে নারী-পাচার চক্রের কাছে বিক্রি করে দেওয়া হয়। গত চার বছরে ৪৩ হাজার ২০০ বার ধর্ষণের শিকার হতে হয়েছে তাঁকে। শুধু তাই নয়, যার হাতে তাঁকে বেচে দেওয়া হয়, সেখানে তাঁকে নির্দেশ দেওয়া হয় প্রতিদিন ৩০ জন পুরুষের শয্যাসঙ্গী হতে হবে তাঁকে।

কার্লা জানিয়েছেন বারো বছর বয়সে তিনি যখন ওই ব্যক্তিকে প্রথম দেখেন, তখন তাঁর মনে হয়েছিল জীবন এরচেয়ে সুন্দর বোধহয় আর হয় না। কিন্তু কিছুদিন পরেই তিনি বুঝতে পারেন তাঁর প্রেমিক একজন ব্যভিচারী, আন্তর্জাতিক নারী পাচার চক্রের সদস্য। কার্লাকেও অভিযুক্ত ব্যক্তি দেহব্যবসায় নামায়। কথা না শুনলেই চলত অকথ্য অত্যাচার। কিল, চড়, ঘুষি, লাথি, মুখে থুথু দেওয়া সবই চলত।

কিশোরীটি জানায়, তাঁকে গরম লোহার রড দিয়ে পুড়িয়ে দিতেও গিয়েছিল ওই ব্যক্তি।

এরপর কার্লা গত চার বছরে গোটা মেক্সিকোর বিভিন্ন জায়গা ঘুরে বেরিয়েছে, এবং প্রতিরাতে তিরিশ জন পুরুষের শয্যসঙ্গী হতে হয়েছে তাঁকে।

– সূত্র : এবিপি






মন্তব্য চালু নেই