মেইন ম্যেনু

চালকদের জন্য মহাসড়কের পাশে হচ্ছে বিশ্রামাগার

সড়ক দুর্ঘটনার ঝুঁকি কমাতে চালকদের একটানা গাড়ি চালানো বন্ধ করতে চায় সরকার। তাদের বিশ্রামের জন্য মহাসড়কের পাশে হচ্ছে স্থাপনা। ট্রাকস্টান্ড এবং বিশ্রামাগার নির্মাণের জন্য উদ্যোগ নিতে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় (এলজিআরডি) মন্ত্রণালয় থেকে ৬১ জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তাদেরকে চিঠি দেয়া হয়েছে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, যে কটি কারণ সড়ক দুর্ঘটনার জন্য দায়ী তার একটি চালকের পর্যাপ্ত বিশ্রামের অভাব। দীর্ঘপথ একটানা গাড়ি চালিয়ে ক্লান্ত চালকরা সাবধান থাকতে পারেন না সব সময়। এ জন্য চালকদের জন্য পর্যাপ্ত বিশ্রামের ব্যবস্থা করার পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

দূরপাল্লার বাস চালকরা তাও নির্দিষ্ট পথ পারি দেয়ার পর হোটেল-রেস্তোরাঁয় খাওয়া এবং হালকা বিশ্রামের সুযোগ পান। কিন্তু ট্রাক চালকরা সে সুযোগ পান না। এসব হোটেলে ট্রাক ঢুকতে দেয়া হয় না। নতুন উদ্যোগ এই সমস্যারও করবে বলে মনে করছে সরকার।

এলজিআরডি সচিব আবদুল মালেক বলেন, ‘ট্রাকচালকরা রাস্তায় ট্রাক দাঁড় করিয়ে রেখে ঘুমিয়ে পড়েন। আবার একটানা ট্রাক চালানোর কারণে রাতে দুর্ঘটনা ঘটে। রাস্তায় ট্রাকচালকদের কোনো খাওয়া্র হোটেল না থাকার কারণে অনেক সমস্যা হচ্ছে। এ জন্যই এই উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে। ট্রাকস্টান্ড নিমার্ণে প্রযোজনীয় জমি ও স্থান নির্ধারণের জন্য জেলা পরিষদকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে’।

সচিব জানান, জেলা পরিষদের জায়গা না থাকলে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের জমি নেয়া হবে।






মন্তব্য চালু নেই