মেইন ম্যেনু

চিত্রশিল্পী হেমা হত্যা : স্বামী গ্রেফতার

মুম্বাইয়ে চিত্রশিল্পী হেমা উপাধ্যায় ও তার আইনজীবীর লাশ উদ্ধারের এক সপ্তাহ পর হেমার প্রাক্তন স্বামী চিন্তন উপাধ্যায়কে গ্রেফতার করা হয়েছে। চিন্তনকে সোমবার রাতে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করা হয়। পরে ভারতের স্থানীয় সময় রাত সাড়ে ৩টায় তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়। চিন্তন ও হেমার সাংসারিক জীবন ভাল না যাওয়ায় তাদের মধ্যে ডিভোর্সের প্রক্রিয়া চলছিল।

গত ১১ ডিসেম্বর ৪৩ বছর বয়সি হালের খ্যাতিমান চিত্রশিল্পী হেমা উপাধ্যায় ও তার আইনজীবী হারিশ বম্বানির লাশ মুম্বাইয়ের কান্দিভালি এলাকার নর্দমায় প্লাস্টিকে মোড়ানো বক্স থেকে উদ্ধার করে পুলিশ। এই হত্যা মামলায় এখন পর্যন্ত পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

হেমার আত্মীয়রা এই হত্যাকাণ্ডে তার স্বামীর হাত রয়েছে বলে সন্দেহ প্রকাশ করেছে। গত সপ্তায় তার কাজিন দিপক প্রসাদ গণমাধ্যমকে জানান, তিনি এবং তার পরিবারের অন্য সদস্যরা গভীরভাবে বিশ্বাস করেন যে, এই হত্যাকাণ্ডে চিন্তনের হাত রয়েছে। তিনি অভিযোগ করেন, হেমার স্বামী কয়েক বছর আগে হেমাকে হত্যার হুমকি দিয়েছিল এবং যেকোনো উপায়ে তা করবে বলেছিল।

হেমার আত্মীয়ের ওই বক্তব্যের পর হেমার স্বামীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করে পুলিশ। এ দিকে চিন্তন উপাধ্যায় পুলিশকে বলেছেন, যদিও তিনি তার স্ত্রীর সঙ্গে থাকতেন না, তিনি তার স্ত্রীকে ভালবাসতেন এবং তাদের মধ্যে কোনো সমস্যা ছিল না।

চিন্তন আরো জানান, তিনি সম্পত্তিবিষয়ক একটি ঝামেলায় পড়েছিলেন।

পুলিশের সন্দেহ, এই মামলার প্রধান অভিযুক্ত বিদ্যাধর রাজবর চিন্তনের খুব কাছের লোক। রাজবরকে এখনো পুলিশ ধরতে পারেনি। সর্বশেষ ভুসাভাল শহরে রাজবরকে দেখা গিয়েছিল।






মন্তব্য চালু নেই