মেইন ম্যেনু

হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের অষ্টমী স্নান

চিলমারী বন্দরে ব্রহ্মপুত্রের নদের পাড়ে লাখো পূণ্যার্থীর ঢল

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি: কুড়িগ্রাম জেলার চিলমারী উপজেলার ব্রহ্মপুত্রের নদের পাড়ে বৃহস্পতিবার ভোর থেকে শুরু হওয়া ব্রহ্মপুত্র নদে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের পবিত্র অষ্টমী স্নান শেষ হয়েছে। লাখো পূণ্যার্থীর পদচারনায় মূখরিত হয়ে উঠে ঐতিহ্যবাহী চিলমারী বন্দরের প্রায় পাচ কি.মি. এলাকা।

‘হে মহা ভাগ ব্রহ্মপুত্র, হে লৌহিত্য,তুমি আমার পাপা হরণ করো। মন্ত্র উচ্চারণ করে পূণ্যার্থীরা কৃপা চান ব্রহ্মার।’ স্নান উৎসবে মেতে উঠেন পূণ্যার্থীরা। বুধবার সকাল থেকেই দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে হাজার হাজার পূণ্যার্থীরা ভিড় জমান চিলমারী বন্দর ব্রহ্মপুত্রের পাড়ে। সড়ক পথে বাস, মাইক্রোবাস, প্রাইভেট কার, নচিমনে, অটোতে ও মোটরগাড়ি এবং নদী পথে ট্রলার ও নৌকাযোগে বিভিন্ন প্রান্ত থেকে দলে দলে পূণ্যার্থীরা সমবেত হন। চিলমারী বন্দর ব্রহ্মপুত্রের পাড়ে উৎসব কমিটির নেতারা জানান, প্রতি বছরের মত এবারও ভারত, নেপাল ও দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে বিপুলসংখ্যক পূণ্যার্থী যোগ দিয়েছেন স্নান উৎসবে।

স্নানের লগ্ন বৃহস্পতিবার ৭টা ৩০মিনিট থেকে শুরু হলেও চিলমারী ব্রহ্মপুত্রের পাড়ে অষ্টমীর স্নান শুরু হয় ভোর ৫টা থেকে। শেষ হয় বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টা। কোন নির্দিষ্ট ঘাট না থাকায় উমুক্ত স্নানঘাটের মাধ্যমে পূণ্যার্থীরা স্নানপর্ব সম্পন্ন করেছেন। স্নান উপলক্ষে কঠোর নিরাপত্তাব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। গোসলের পর নদীর কিনারায় ঘাটের পাশেই নারী দের কাপড় বদলানোর জন্য বুথের ব্যাবস্থা করা হয়। ৪০/৪৬টি টিউবওয়েল স্থাপন করা হয়েছে। ৩০/৪৫টি ধর্মীয় সামাজিক ও সেবা মূলক সংঘঠন ক্যাম্প খুলে সেবাদেয়। এসব ক্যাম্প থেকে পূণ্যার্থীদের রান্না করা খাবার ও চিকিৎসা সুবিধা দেওয়া হয়েছে।

এ ছাড়াও নিয়ন্ত্রণকক্ষ খোলা হয়েছে। নিরাপত্তার জন্য পুলিশ, র‌্যাব, আনসার ও ভিডিপির পর্যাপ্ত সদস্য মোতায়েন করাসহ ঝুঁকিপূর্ণ স্থানগুলোতে পুলিশী পাহারার ব্যবস্থা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে জোড়গাছ বাজার ও শুক্রবার বালাবাড়ীহাটে মেলা অনুষ্ঠিত হবে।

অপর দিকে স্নান উৎসব উপলক্ষে কুড়িগ্রাম জেলা প্রসাশক খান মোঃ নুরুল অমিন, উপজেলা চেয়াম্যান শওকত আলী সরকার বীর বিক্রম স্নান উৎসব কেন্দ্র পরিদর্শন করে।
স্নান উৎসব কমিটির আহবায়ক দিনেশ চন্দ্র দাশ জানান, প্রায় ২লাখ পূণ্যার্থী স্নান উৎসবে যোগ দেয়। এর মধ্যে বিভিন্ন দেশের অতিথিও ছিল।






মন্তব্য চালু নেই