মেইন ম্যেনু

চীনের বিমানবাহিনীতে বানর নিয়োগ!

চীনের বিমানবাহিনীতে যোগ দিচ্ছে বানরসেনা। চীনের বিমানবাহিনীর নিরাপত্তার লক্ষ্যে একটি বিমানবন্দরে বানরের একটি গ্রুপকে নিযোগ দিচ্ছে সে দেশের বিমানবাহিনী। আকাশে পাখির হাত থেকে বিমান দুর্ঘটনা রোধে এসব বানরকে বিশেষভাবে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে।

চীনের বিমানবন্দর এলাকায় গাছ ও পাখি নিয়ে বিমানবাহিনীকে যথেষ্ট সমস্যার মুখোমুখি হতে হয়। পাখির কারণে অনেক সময় বিমান দুর্ঘটনা পর্যবন্ত ঘটেছে। তাই বেশ কিছু বানর নিয়ে নিজস্ব বাহিনি তৈরি করছে সেদেশের এয়ারফোর্স৷ আর তাই জোরকদমে চলছে বাহিনিতে বানর নিয়োগ৷ জানা গেছে, নিয়োগ পাওয়ার পর এর মধ্যে বিমান বিভাগের বানর কর্মচারীরা, ১৮০টি পাখির বাসা ভেঙে দিয়েছে৷

চীনে পাখির সংখ্যা এত যে মাঝেমধ্যেই বিমানচালকরা প্রমাদ গোণেন৷ কখন যে বিমানের উড্ডয়নপথে পাখি এসে হাজির হবে কেউ জানে না৷ পাখির সঙ্গে সংঘর্ষে বিমান দুর্ঘটনা ঘটেছে প্রায়ই।আকাশে পাখিদের ওড়াওড়ি নিয়ন্ত্রণ করতে চাইছে বিমান কর্তৃপক্ষ৷ কিন্তু বিমানের গতিপথে পাখি চলে এলে করার কিছু নেই৷তাই তাদের আগেই তাড়াতে হবে৷ সেই কাজটিই করবে বানরকূল৷ তাদের কাজ হবে, গাছে উঠে পাখির বাসা ভেঙে দেয়া৷

উল্লেখ্য, ১৯৬০ সালে এই রকম এক দুর্ঘটনার কবলে পড়েছিল ইউএস এয়ারক্রাফ্টের বিমান৷ সেই দুর্ঘটনায় প্রাণ হারান প্রায় ৭২ জন যাত্রী৷ ইউএস ফেডারেল অ্যাভিয়েশন অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, এই শতকের প্রথম ১০ বছরেই প্রায় ৫০০টি এমন দুর্ঘটনা ঘটেছে৷






মন্তব্য চালু নেই