মেইন ম্যেনু

চুল রঙ করার ভয়াবহ ৪ টি পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া !

সৌন্দর্য বৃদ্ধি করতে এবং স্টাইল করতে অনেকেই চুল রঙ করে থাকেন। নারী পুরুষ উভয়েই নিজের মনের মতো করে চুল সাজিয়ে নেন পছন্দের রঙ করে। কিন্তু এই চুল রঙের মারাত্মক ভয়াবহ কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া রয়েছে তা কি আপনারা জানেন? অনেকেই এই সম্পর্কে একেবারেই জানেন না। চলুন তাহলে জেনে নেয়া যাক এই সম্পর্কিত গুরুত্বপূর্ণ কিছু তথ্য।

১) ক্যান্সার

দ্য অ্যামেরিকান ক্যান্সার সোসাইটির গবেষণায় দেখা যায় পিপিডি ( paraphenylenediamine ) মানুষের ডিএনএ সেল নষ্ট করে ক্যান্সারের কোষ উৎপন্ন করতে পারে। এই কেমিক্যালটি হরমোনের ভারসাম্য নষ্ট করে দিতে পারে যার কারণে স্তন ক্যান্সারের সম্ভাবনা বাড়ে। যদিও চুল রঙ করার কেমিক্যালে এই পিপিডি নামক বস্তুটি পাওয়া গিয়েছে বেশ অল্প পরিমাণে তারপরও বিষয়টি নিয়ে আরও সতর্ক হওয়া উচিত সকলের।

২) অ্যালার্জি

অনেকের ত্বক অনেক সেনসিটিভ হয়ে থাকে যার কারণে সামান্য কেমিক্যালের সংস্পর্শে আসা মাত্র অ্যালার্জির প্রকোপ শুরু হয়ে যায়। paraphenylenediamine অর্থাৎ পিপিডি অনেক বেশি অ্যালার্জি উদ্রেককারী কেমিক্যাল যার কারণে মাথার ত্বকে চুলকোনি, জ্বালাপোড়া, ফুলে যাওয়া, র‍্যাশ উঠা, খুশকি দেখা দিতে পারে। এছাড়াও অ্যালার্জি যদি মারাত্মক পর্যায়ে চলে যায় তাহলে চোখ ফুলে যাওয়া, চোখ, নাক ও মুখের চারপাশের ত্বকে অ্যালার্জির প্রকোপ দেখা দিতে পারে।

৩) অতিরিক্ত চুল ভেঙে পড়া

সুন্দর দেখানোর জন্য চুলে রঙ করলেন, কিন্তু এই কারণে আপনার চুলই রইল না তাহলে কেমন হবে? জ্বী, এই কাজটিও হতে পারে অতিরিক্ত চুলের রঙ ব্যবহার করলে। চুল রঙের ক্ষতিকর কেমিক্যাল চুলের ফলিকল একেবারেই নষ্ট করে দেয় যার কারণে মাঝ থেকে চুল ভেঙে যাওয়া শুরু করে। এবং নতুন চুল গজানোতেও বাধা প্রদান করে। সুতরাং সাবধান।

৪) অ্যাজমা

অবাক হলেও এটি সত্যি যে চুলের রঙের জন্য আপনার অ্যাজমার সমস্যা হতে পারে। গবেষণায় দেখা যায় যারা নিয়মিত চুল রঙ করার তাদের ত্বকের অ্যালার্জি ও অ্যাজমা হওয়ার প্রবনতা অনেক বেশী। এখানেও কাজ করে সেই একই ক্ষতিকর কেমিক্যাল পিপিডি। তাই চুল রঙ করার আগে একটু চিন্তা করে নিন।






মন্তব্য চালু নেই