মেইন ম্যেনু

চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদায় ডাকাতের ছোড়া বোমার আঘাতে আহত ৩

শামীম রেজা, চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রতিনিধি: চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার বাঘাডাঙ্গা খৃস্টান মিশনপাড়ায় ডাকাতের ছোড়া বোমার আঘাতে তিনজন হয়েছেন। সোমবার দিবাগত মধ্যরাতে ডাকাতদল গ্রামটিতে হানা দেয়। তবে গ্রামবাসীর প্রতিরোধের মুখে তারা কোন লুটপাট করতে পারেনি।

আহতরা হলেন, বাঘাডাঙ্গা গ্রামের সনত মন্ডলের ছেলে আলম মন্ডল (৫০), আবুল মন্ডলের ছেলে রনি মন্ডল (২২) ও ঠান্ডু মন্ডলের ছেলে থমাস মন্ডল (২৮)। গুরুত্বর আহত গরু ব্যবসায়ী আলম মন্ডলকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাঁর বাম হাত ও পাজরে বোমার আঘাত লেগেছে। এছাড়া বাকি দুইজন স্থানীয় ক্লিনিকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছে।

আহত আলম মন্ডল জানান, যে রাত ১২ টার দিকে বাড়ির বারান্দায় শুয়ে ছিলেন। ওই সময় আনুমানিক ১৫ জনের ডাকাতদলের সদস্যরা বাড়ির দরজা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে এবং টাকা দাবি করে । ওই সময় আলম মন্ডল ডাকাত ডাকাত বলে চিৎকার করলে প্রতিবেশিরা ছুটে আসে। অবস্থা বেগতিক বুঝতে পেরে ডাকাতদলের সদস্যরা পরপর তিনটি বোমা হামলা চালিয়ে দ্রুত সটকে পড়ে। এদিকে ঘটনার পর আজ মঙ্গলবার বেলা ১১ টার দিকে জেলার পুলিশ সুপার মো. রশীদুল হাসান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

পুলিশ সুপার জানান, আলম মন্ডল একজন গরু ব্যবসায়ী। তাঁর কাছে নগদ টাকা থাকতে পারে এমন খবরে ডাকাতদলের সদস্যরা সেখানে হানা দেয়। গ্রামবাসীর প্রতিরোধের মুখে তারা বোমা ফাটিয়ে এলাকা ত্যাগ করে। তবে কোন টাকা পয়সা নিতে পারেনি।

দামুড়হুদা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ লিয়াকত হোসেন বাঘাডাঙ্গা খৃস্টান মিশনপাড়ায় ডাকাতদলের হানা দেওয়ার বিষয়টি সঠিক এবং এ ব্যাপাওে মামলার প্রক্রিয়া চলছে বলে তিনি জানান।






মন্তব্য চালু নেই