মেইন ম্যেনু

চেন্নাইতে ভারী বর্ষণে বন্যা

ভারতের চেন্নাইয়ে শনিবার রাত থেকে ভারী বর্ষণের ফলে সেখানকার বেশিরভাগ এলাকা প্লাবিত হয়ে গেছে। বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপের ফলে শুরু হওয়া এই বৃষ্টি মাঝখানে ঘণ্টা খানেকের জন্য থামলেও আবার পুরোদমে শুরু হয়। যদিও আশা করা হচ্ছে খুব শিগগিরি বৃষ্টিপাত কমে যাবে।

গোটা চেন্নাই পানিতে ডুবে যাওয়ায় সেখানে গাড়ি চলাচল প্রায় বন্ধ, এমনকি স্কুল-কলেজ আগামী মঙ্গলবার পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। অতিপ্লাবিত এলাকাগুলোতে আটকে পড়া মানুষের সাহায্যার্থে ব্যবহার করা হচ্ছে নৌকা।

চেন্নাইয়ের মুখ্য মন্ত্রী জে জয়ললিতা তার নির্বাচনী এলাকা আর কে নগরের পরিস্থিতি পরিদর্শনে গেলে তার গাড়ি বহর বন্যার পানিতে রাস্তায় আটকে যায়। মুখ্যমন্ত্রী সম্প্রতি চেন্নাইয়ের এই বন্যা পরিস্থিতির উপরে একটি উক্তি করে বিরোধী দলের তোপের মুখে পড়েন। মুখ্যমন্ত্রী বলেছিলেন, ভারী বর্ষণে ক্ষয়ক্ষতি হবে এটাই স্বাভাবিক। বিরোধীদল পিএমকে নেতা আনবুমানি রামাদোস বলেছেন, এই উক্তি সাধারণ মানুষের দুর্ভোগকে খাটো করে দেখার সামিল।

চেন্নাইয়ের যে জায়গাগুলো বেশি প্লাবিত হয়েছে সেগুলো হচ্ছে- ভেলাচেরি, তাম্বারাম, ওল্ড মহাবলিপুরাম রোড, অন্ননগর এবং কয়াম্বেদু। তাছাড়া চেন্নাইয়ের অনেক মহাসড়কও ডুবে গেছে।

উল্লেখ্য যে গত ৯ই নভেম্বর বঙ্গোপসাগরে শুরু হওয়া নিম্নচাপের ফলে তামিল নাড়ু এবং এর আশেপাশের বেশ কিছু এলাকায় ভারী বর্ষণ শুরু হয় এবং এতে বিচ্ছিন্নভাবে এখন পর্যন্ত প্রায় ৭১ জন মারা গেছে।






মন্তব্য চালু নেই