মেইন ম্যেনু

চোখের বদলে চোখ

একটি মেয়ের মুখে এসিড নিক্ষেপের দায়ে অভিযুক্ত ব্যক্তির চোখ নষ্ট করে দেওয়া হয়েছে। ২০০৯ সালে চার বছর বয়সী একটি মেয়ের মুখে এসিড নিক্ষেপ করার কারণে তার দৃষ্টিশক্তি নষ্ট হয়ে গিয়েছিল।

ইরানের আধা-সরকারি সংবাদ সংস্থা ফার্স নিউজ এজেন্সির বরাতে জানা যায় দ্বিতীয়বারের মতো ‘চোখের বিনিময়ে চোখ’ এই শাস্তি কার্যকর হচ্ছে। ইসলামী প্রজাতন্ত্র ইরানে এই আইনটি পাস হয়েছিল ১৯৫৮ সালে। তবে মাত্র দুবার কার্যকর করা হয়েছিল। তেহরানের একটি কারাগারে এক ব্যক্তিকে শাস্তি হিসেবে অন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল ২০১৫ সালের মার্চ মাসে। এসিড নিক্ষেপ করে অপর এক ব্যক্তির একটি চোখ কানা করে দেওয়ার দায়ে তার এই শাস্তি হয়েছিল।

সম্প্রতি আরেকজন অপরাধীর শাস্তি কার্যকর করা হয়। ইরানিয়ান আইনে এরকম শাস্তির বিধান থাকলেও ক্ষমা প্রদর্শনের কথা বলা হয়ে থাকে। এসব ক্ষেত্রে ক্ষতিগ্রস্তের পরিবারের মতামতের উপর জোর দেওয়া হয়।

সূত্র: এপি






মন্তব্য চালু নেই