মেইন ম্যেনু

ছক্কা হাঁকানোর চেষ্টায় শিক্ষাসচিব

শিক্ষামন্ত্রীর নেতৃত্বে টি-টোয়েন্টি খেলছেন শিক্ষাসচিব মো. নজরুল ইসলাম খান। খেলছেন লাস্ট ওভার। ছক্কা হাঁকানোরও চেষ্টা করছেন তিনি।

রোববার সচিবালয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে শিক্ষাসচিব বলেন, ‘টি-টোয়েন্টির লাস্টের দিকে (ব্যাটসম্যান) প্রায়ই কমান্ডারের সঙ্গে পরামর্শ করে।পরামর্শ করে টিম স্পিরিট নিয়ে ডেফিনেটলি কাজ করছি। তবে ছক্কা মারার চেষ্টা করছি। ছক্কা মারতে গেলে অনেক সময় জিরোতেও আউট হয়। আবার রান আউটও হয়। সেটাও হয়তো হতে পারি।’

অভিযোগ আছে, শিক্ষামন্ত্রীর সিদ্ধান্তকে পাশ কাটিয়ে শিক্ষাসচিব একাই নতুন ভর্তি পদ্ধতি চালু করে জটিলতা সৃষ্টি করেছেন, ভোগান্তিতে ফেলেছেন শিক্ষার্থীদের।

এ নিয়ে শিক্ষামন্ত্রী-সচিব দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়েছেন বলে বিভিন্ন গণমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয়। ভর্তি নিয়ে জটিলতা সৃষ্টি হওয়ার পর থেকে মন্ত্রণালয়ের অবস্থান ব্যাখ্যা করে শিক্ষাসচিবই বিভিন্ন স্থানে মন্ত্রণালয়ের অবস্থান ব্যাখ্যা করে বক্তব্য রাখেন। পুরো বিষয়টি নিয়ে একেবা্রেই নিশ্চুপ ছিলেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।

নজরুল ইসলাম খান বলেন, ‘আমি অনেক দিন একাডেমিতে কাজ করেছি। নিয়ম হলো সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে আলাপ-আলোচনা করতে হবে। সেখানে দ্বিমত হতে পারে। কিন্ত একবার সিদ্ধান্ত হয়ে গেলে তখন সিদ্ধান্তটাই পুরোপুরিভাবে পালন করতে হবে।’

সাংবাদিকদের অপর এক প্রশ্নের জবাবে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘নিজেদের মধ্যে কোন মনোমালিন্য নেই। আমাদের মধ্যে আন্ডারস্ট্যান্ডিং আছে। বিভিন্ন বিষয়ে দ্বিমত থাকতে পারে। আমার স্ত্রীর সঙ্গে আমার দ্বিমত হয়, কন্যার সঙ্গে আমার দ্বিমত হয়, বাবার সঙ্গে আমার দ্বিমত হয়েছে। এটা হতেই পারে, এটা স্বাভাবিক।’






মন্তব্য চালু নেই