মেইন ম্যেনু

ছাগলের পেটে মানুষের বাচ্চা!

ছাগলের বাচ্চা তো ছাগলই হয়। কিন্তু ভিন্ন ঘটনা দেখা গেল মালয়েশিয়ার জোহর রাজ্যে। সম্প্রতি ওই অঞ্চলে এক ছাগলের পেট থেকে যে বাচ্চাটি জন্ম হয়েছে, তা দেখতে অনেকটা মানবশিশুর মত। যদিও এটি আর জীবিত নেই। মানুষ সদৃশ্য ওই ছাগলছানাটিকে দেশের পশু দপ্তরকে দান করেছেন এর মালিক ইব্রাহিম বশির।

৬৩ বছরের ইব্রাহিম জোহর রাজ্যের কোটা তিঙ্গি জেলার ফেলদা এলাকার বাসিন্দা। গত শুক্রবার স্থানীয় সময় সকাল ১১টার দিকে তার পালিত মাদী ছাগলটির ঘরে ওই বাচ্চাটির জন্ম হয়। কিন্তু নবজাতককে দেখে তিনি তো অবাক! এ সম্পর্কে স্থানীয় এক পত্রিকাকে তিনি বলেছেন, ‘প্রথমে অদ্ভূত ওই ছাগলের বাচ্চাটিকে দেখে আমি থ হয়ে যাই। এর মুখ, নাক, ছোট ছোট চারটি পা এমনকি দেহের গঠনটি পর্যন্ত একটি মানব শিশুর মত। যদিও ওর গোটা শরীর হালকা বাদামী লোমে ঢাকা ছিল।’ এছাড়া এটির দেহের সঙ্গে কোনো নাড়িও সংযুক্ত ছিল না। তিনি গোয়ালঘরে যাওয়ার আগেই বাচ্চাটি মারা গিয়েছিল। তবে বাচ্চটি কি জন্মের আগেই মারা গেছে, না মৃত্যু অবস্থায় এর জন্ম হয়েছে, সে বিষয়টিও স্পষ্ট নয়। তিনি মৃত ছাগলছানাটিকে বরফ দিয়ে একটি তাপ নিরোধক বাক্সে রেখে দেন।

অদ্ভূত ওই ছাগলের বাচ্চাটি দেখতে তার বাড়িতে প্রচুর লোকজন এসে ভিড় জমিয়েছিল। কেউ কেউ বিপূল অর্থের বিনিময়ে মৃত ছাগলছানাটি কিনেও নিতে চেয়েছিল। কিন্তু ইব্রাহীম তাদের প্রস্তাবে রাজি হননি। তিনি রোববার স্থানীয় পশুবিভাগে এটি দান করেছেন।






মন্তব্য চালু নেই