মেইন ম্যেনু

ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল বন্ধ

ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের পর শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ বন্ধ ঘোষণা করেছে কর্তৃপক্ষ। একই সঙ্গে দুপুর ২টার মধ্যে কলেজের দু’টি ছাত্রাবাসের শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগের নির্দেশ দেয়া হলে তারা হল ত্যাগ করেছে।

রোববার দুপুরে কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি আনিছুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক শাহরিয়ার হোসেন শান্ত গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষে ৭ থেকে ৮ জন আহত হওয়ার ঘটনা ঘটলে কর্তৃপক্ষ এই সিদ্ধান্ত নেয়।

কলেজ সূত্রে জানা গেছে, ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পরিচালিত দু’টি সাংস্কৃতিক সংগঠন স্ফুরণ ও দ্যা বিটস। এই দুই সংগঠনের কর্মীদের মধ্যে শনিবার রাতে কথা কাটাকাটি হয়। সকালে বিষয়টি নিয়ে কলেজ শাখা ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা সকালে কলেজ কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বৈঠকে বসে।

এরপর সকাল সাড়ে ১১টায় একাডেমিক কাউন্সিল এ নিয়ে জরুরি বৈঠকও হয়। বৈঠক চলাকালীন সময়ে দুপুর ১২টার দিকে কলেজ ক্যাম্পাসে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক গ্রুপ। এতে সাত থেকে আট জন আহত হয়।

শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. এবিএম মাকসুদুল আলম বলেন, ‘সাধারণ শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা ও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে কলেজের শিক্ষা কার্যক্রম অনির্দিষ্ট কালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত এ আদেশ বলবৎ থাকবে।’

ঢাকা মহানগর পুলিশের তেজগাঁও বিভাগের উপ-কমিশনার বিপ্লব কুমার সরকার বলেন, সংঘর্ষের খবর পেয়ে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ঘটনার পর ক্যাম্পাসে প্রয়োজনীয় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই