মেইন ম্যেনু

ছাত্রলীগ কর্মী হত্যায় ১২ জনের যাবজ্জীবন

বাগেরহাটে ছাত্রলীগ কর্মী আরিফ হাসান রাজু হত্যা মামলায় ১২ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মিজানুর রহমান খান সোমবার দুপুরে এ রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, সদর উপজেলার যাত্রাপুর গ্রামের আব্দুর ছত্তারের চার ছেলে আব্দুর রাজ্জাক (২৩), শেখ নূর হোসেন (২১), শেখ নজরুল (২০) ও শওকত শেখ (৩২), একই গ্রামের দবির উদ্দিনের ছেলে আব্দুছ ছত্তার (৫৮), নুরু শেখ (৪০), চাপাতলা গ্রামের আব্দুল কাদেরের দুই ছেলে জিয়ারুল শেখ (২৪) ও কামরুল (২৫), একই গ্রামের আব্দুল মান্নানের ছেলে সুলতান (২২) ও মৃত দবির উদ্দিনের ছেলে আব্দুল কাদের (৫০)। বাকি দু’জনের নাম তাৎক্ষণিক জানা যায়নি।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা যায়, ২০০৬ সালের ৪ সেপ্টেম্বর বাগেরহাট সদর উপজেলার যাত্রাপুর ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ড ছাত্রলীগের কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে যাত্রাপুর বাজার এলাকার লুৎফর ফকিরের বাড়িতে প্রতিপক্ষ লোকজন হামলা চালায়। এ সময় একই এলাকার শেখ নুর ইসলামের ছেলে ছাত্রলীগ কর্মী অরিফ হাসান রাজুকে প্রতিপক্ষ লোকজন বেধড়ক মারধর করে ফেলে রেখে যায়। তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিৎকিসক মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনার দিন রাতেই নিহতের বাবা শেখ নুর ইসলাম বাদী হয়ে ১২ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা আরও ৫-৬ জনের নামে হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. হাবিবুর রহমান ২০০৭ সালের ২১ জানুয়ারি ১৫ জনের নাম উল্লেখ করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। এ মামলায় ১৩ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে বিচারক এ রায় প্রদান করেন।






মন্তব্য চালু নেই