মেইন ম্যেনু

ছাত্রলীগ নেতাকে গালি, ছাত্রদলকর্মীকে পিটুনি

রাজশাহী ব্যুরো প্রধান: ছাত্রলীগ নেতাকে গালি দেয়ার অভিযোগে ছাত্রদলের এক কর্মীকে মারধর করেছে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। মঙ্গলবার দুপুর ১টার রাজশাহী মেডিকেল কলেজে (রামেক) হাসপাতালের দিকে রামেকের চারু ক্যান্টিনের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

মারধরের শিকার ছাত্রদল কর্মীর নাম তাজওয়ার হোসেন। তিনি রাজশাহী মেডিকেল কলেজের বিডিএস- ২৭তম ব্যাচের শিক্ষার্থী। মারধরের পর তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

রামেক সূত্র জানায়, তাজওয়ার হোসেন রামেক ছাত্রদল নেতা কাজী আশিকুর রহমানের অনুসারি। মঙ্গলবার দুপুরে তিনি রামেকের চারু ক্যান্টিনের সামনে তিনি কয়েকজন দলীয় নেতাকর্মীর সামনে রামেক ছাত্রলীগের সভাপতি শফিকুল ইসলাম অপুকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন। তখন একটু দুরেই ছাত্রলীগ সভাপতি অপু দাঁড়িয়ে ছিলেন।

এ সময় তাকে গালাগালি করতে শুনে অপুর কয়েকজন অনুসারি তাজওয়ার হোসেনের কাছে গিয়ে এর কারণ জানতে চান। এতে আরো ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন তাজওয়ার। এক পর্যায়ে তিনি ছাত্রলীগ কর্মীদের ওপর চড়াও হয়ে মারমুখি আচরণ করেন।

এ সময় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা তাজওয়ারকে মারপিট শুরু করেন। পরে অন্যান্য শিক্ষার্থীরা তাকে ছাত্রলীগের হাত থেকে উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা করান। তবে এ সময় ক্যাম্পাসে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। পরে খবর পেয়ে নগরীর রাজপাড়া থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

রামেক শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি শফিকুল ইসলাম অপু বলেন, ‘ছাত্রদল কর্মী কাজী আশিকুর রহমানের উষ্কানিতে তাজওয়ার আমাকে গালাগালি করছিল। এ সময় কয়েকজন ছাত্র এর প্রতিবাদ করলে উল্টো তাজওয়ারই তাদের সঙ্গে মারমুখি আচরণ শুরু করে। তখন তারা তাকে (তাজওয়ারকে) কয়েকটি চড়-থাপ্পড় মারে।’

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে রাজশাহী মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. মাসুম হাবিব বলেন, ‘উভয়পক্ষকে অফিসে ডেকে বিষয়টি মিমাংসা করার চেষ্টা চলছে। পরিস্থিতি এখন শান্ত রয়েছে।’






মন্তব্য চালু নেই