মেইন ম্যেনু

ছাত্রীকে গালে চুমু খেলেন প্রধান শিক্ষক !

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ছাত্রীকে চুমু দেয়ার ঘটনায় অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক আয়নাল হককে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

গাইবান্ধা জেলার ফুলছড়ি উপজেলার উদাখালী এ ঘটনা ঘটে।

রংপুর বিভাগীয় প্রাথমিক শিক্ষা অফিস থেকে গত সোমবার সকালে এ বরখাস্তের চিঠি গাইবান্ধায় এসে পৌঁছেছে বলে জানান ফুলছড়ি উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুল্লাহিল সাফি।

ছাত্রীকে চুমু দেয়ার বিষয়টি ছড়িয়ে পড়লে এলাকার লোকজন বিক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন। এক পর্যায়ে বিক্ষুব্ধ জনতা বিদ্যালয়ে তালা লাগিয়ে দেয়। খবর পেয়ে ফুলছড়ি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান ও উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুলাহিল সাফি ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করেন। এরই পরিপ্রেক্ষিতে অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক আয়নাল হককে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

স্থানীয় সূত্র জানায়, উদাখালী গ্রামের বাসিন্দা জাহিদুল ইসলামের মেয়ে ওই বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণিতে পড়ে। অন্যান্য দিনের মতো গত ২৫ ফেব্রুয়ারি সে বিদ্যালয়ে যায়। দুপুরের দিকে প্রধান শিক্ষক আয়নাল হক অসৎ উদ্দেশ্যে ওই ছাত্রীর হাতে, গালে চুমু দেন। এ সময় শিক্ষকের এ ধরনের আচরণে ও লজ্জায় অন্যান্য শিক্ষার্থীরা ক্লাস থেকে বের হয়ে যায়।






মন্তব্য চালু নেই