মেইন ম্যেনু

ছাত্রীকে চুমু : অবশেষে সেই প্রধান শিক্ষক বরখাস্ত

গাইবান্ধার ফুলছড়ি উপজেলার উদাখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণির এক ছাত্রীকে গালে চুমু দেয়ার ঘটনায় প্রধান শিক্ষক আয়নাল হককে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

এছাড়া ওই ঘটনা তদন্তে তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

সোমবার ইস্যুকৃত প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগের রংপুর বিভাগীয় উপ-পরিচালক মহিউদ্দিন তালুকদার স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এ নির্দেশ দেয়া হয়।

এই নির্দেশ গত ২৫ ফেব্রুয়ারি থেকে কার্যকর হবে বলেও পত্রে উল্লেখ করা হয়েছে।

এছাড়া চিঠিতে সহকারি উপজেলা শিক্ষা অফিসার জাহেদুর রহমানকে আহ্বায়ক করে গঠিত তিন সদস্যের কমিটিকে আগামী তিন কার্যদিবসের মধ্যে সরেজমিনে ঘটনা তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিল করার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আয়নাল হক গত বৃহস্পতিবার ৫ম শ্রেণির এক ছাত্রীর গালে ক্লাসের ভেতরে শিক্ষার্থীদের সামনে চুমু দেন। ওই ঘটনা প্রকাশ হয়ে পড়লে অভিভাবক ও গ্রামবাসী বিক্ষুদ্ধ হয়ে ওঠে। এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।

গত শনিবার বিক্ষোভ প্রদর্শন করে বিদ্যালয়ে এসে ভাংচুর চালায় এবং অফিস ও ক্লাশ রুমে তালা লাগিয়ে দেয় অভিভাবকরা। এছাড়া ওই প্রধান শিক্ষকের অপসারণ ও গ্রেফতারের দাবি জানায় তারা।






মন্তব্য চালু নেই