মেইন ম্যেনু

ছাত্রীদের ‘কুমারীত্ব রক্ষার অঙ্গীকারনামায়’ স্বাক্ষর করতে বললো শিক্ষক, অতঃপর…

উত্তর-পশ্চিম চীনের একটি কলেজে ছাত্রীদের ‘কুমারীত্ব রক্ষার অঙ্গীকারনামায়’ স্বাক্ষর করতে বলায় ব্যাপক সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে। একটি কোর্সের অংশ হিসেবে তাদের এই অঙ্গীকার করতে বলা হয়েছিল।

দেশটির সংবাদমাধ্যম চাইনা ইকোনমিক ডেইলি তাদের অনলাইন সংস্করণে জানিয়েছে, শানজি প্রদেশের শিয়ান শহরের ওই কলেজে ‘নো রিগ্রেটস ইয়ুথ’ নামের একটি কোর্সের সময় ছাত্রীদের একটি অঙ্গীকারনামায় স্বাক্ষর করতে বলা হয়।

ছাত্রীদের যে অঙ্গীকারনামায় স্বাক্ষর করতে বলা হয়েছিল তাতে লেখা ছিল- ‘আমি আমার নিজের সঙ্গে, পরিবার, বন্ধু ও আমার ভবিষ্যৎ স্বামী-সন্তানদের কাছে অঙ্গীকার করছি যে, আমি একজনের সঙ্গে সারা জীবন বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার আগ পর্যন্ত সব ধরনের প্রাক-বৈবাহিক যৌনক্রিয়া থেকে বিরত থাকব।’

এতে বিয়ের পর অন্য কোনো সম্পর্কে জড়িয়ে না পড়ার অঙ্গীকারের কথাও রয়েছে।

১৯৯০-এর দশকে আমেরিকান কলেজগুলোয় যৌন সম্পর্ক থেকে বিরত থাকার এ রকম অঙ্গীকার করার প্রচলন ছিল।

প্রতিবেদনে কলেজটির নাম প্রকাশ করা হয়নি। তবে অনলাইনে এ খবর ছড়িয়ে পড়ার পর তা নিয়ে ব্যাপক বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে।

চীনা মাইক্রোব্লগ সাইট সিনা ওয়েইবোতে একজন লিখেছেন, ‘একবিংশ শতাব্দীতে এ ধরনের একটি ঘটনা কল্পনা করা মুশকিল।’

আরেকজন লিখেছেন, ‘বিয়ের আগে কেউ যৌন সম্পর্ক করবে কি না, এটা তার নিজ সিদ্ধান্তের ব্যাপার। বিশ্ববিদ্যালয় এতে নাক গলাচ্ছে, এটা সত্যিই চিন্তার কথা।’

কেউ কেউ অবশ্য বলছেন, এতে অন্যায় কিছুই নেই। তাদের মতে, ছেলেদেরও এ ধরনের অঙ্গীকারনামায় স্বাক্ষরের নিয়ম থাকা উচিত।

সূত্র : বিবিসি






মন্তব্য চালু নেই