মেইন ম্যেনু

ছাত্রের মোবাইলে নগ্ন ছবি পাঠালেন শিক্ষিকা: অতঃপর…

স্রেফ একটা ভুল। সে জন্য একজনের কতটা সর্বনাশ হয়েছে, সেটা পরের ব্যাপার। অন্যজনের তো ভরা পৌষ মাস। একজনের মোবাইলের তরঙ্গ বেয়ে অন্যজনের মোবাইলে গেল এমন জিনিস, যা অনায়াসে দ্বিতীয়জনের কাছে হয়ে গেল বিশাল পুঁজি। সূত্র: আবাং

আমেরিকার এক শিক্ষিকার মুহূর্তের ভুল তাঁকে ঠেলে দিয়েছিল এমন পরিস্থিতিতেই।

এক ছাত্রের মোবাইলে শিক্ষিকা পাঠিয়ে দিলেন তার প্রায় নগ্ন সেলফি। সঙ্গে আরও লিখে দিলেন- ”আরও কিছু চাই কি না”। ছাত্রটি দেরি করেনি। সটান লিখে দেয় ”ইয়েস”।

তখনও ওই শিক্ষিকা বুঝতে পারেননি, কী ভুল তিনি করে ফেলেছেন। এর পরে কথপোকথন আরও কিছুটা এগোয়। ছাত্রটি তখন নিজেই জানায় তার পরিচয়।

অতঃপর? শিক্ষিকা তো মহাবিপাকে। ছাত্রটিকে অনুরোধ জানায় সেগুলো মুছে ফেলতে। কিন্তু এমনিতে ছাড়ার পাত্র নয় সে। শিক্ষিকার কাছে ‘এ’ গ্রেড দাবি করে বসে ছাত্রটি। বাধ্য হয়ে শিক্ষিকাও রাজি হয়ে যান। এখানেই শেষ নয়, ছাত্রটি ফের লিখে পাঠায় যে, ছবিগুলো দেখে সে খুবই শিহরিত।

ভুলে ছাত্রের মোবাইলে নগ্ন ছবি পাঠালেন শিক্ষিকা!

”আই অ্যাম ইমপ্রেসড বাই হোয়াট আই সি…” শিক্ষিকার তখন নিরুপায়। নিরবে সহ্য করলেন ছাত্রের রশিকতা।

এখন প্রশ্ন হল, কীভাবে এই ভুল করলেন শিক্ষিকা। উত্তর সোজা। ছাত্র এবং বয়ফ্রেন্ডের প্রথম নাম এক। তাই বয়ফ্রেন্ড ভেবে ছাত্রকে নিজের নগ্ন ছবি উপহার দিয়ে বসেন।

এরপর অবশ্য ছাত্রটি ওই ছবি মুছে ফেলেছিল, নাকি আরও ব্লাকমেইল করেছিল তা জানা যায়নি। তবে ঘটনার পর থেকে ওই শিক্ষিকার সঙ্গে ছাত্রটির সম্পর্ক অনেক অন্তরঙ্গ হয়ে যায়।






মন্তব্য চালু নেই