মেইন ম্যেনু

ছিনতাইয়ের দায়ে ছাত্রলীগ নেতাকে ঢাবি থেকে বহিষ্কার

বান্ধবীকে ধর্ষণের ভয় দেখিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্র সংলগ্ন ডাচ্-বাংলা ব্যাংকের এটিএম বুথ থেকে ৫০ হাজার টাকা তুলে নেওয়ার ঘটনায় ছাত্রলীগ নেতাকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে।

বহিষ্কৃত রাজিব বাড়ৈ ঢাবির জগন্নাথ হল শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ও পালি অ্যান্ড বুদ্ধিষ্ট স্টাডিজের ৪র্থ বর্ষের ছাত্র। রাজিব জগন্নাথ হলের আবাসিক শিক্ষার্থী।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. এম আমজাদ আলী বহিষ্কারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। মঙ্গলবার উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে তিনি জানান।

প্রক্টর বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের শৃংখলাবিরোধী কাজ করায় উপাচার্যের সঙ্গে বৈঠকে অভিযুক্ত শিক্ষার্থীকে সাময়িক বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বহিষ্কারের ফাইলটিসহ ওই ছাত্রকে আজীবনের জন্য বহিষ্কার চেয়ে সিন্ডিকেট বৈঠকে সুপারিশ করা হবে। সেখানে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

গত ১৬ আগস্ট রাতে বিশ্ববিদ্যালয় টিএসসি সংলগ্ন সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বান্ধবীকে ধর্ষণের ভয় দেখিয়ে আনসার আলী লিমনের এটিএম কার্ড ছিনিয়ে নেয় রাজীব ও তার বন্ধুরা। পরে এটিএম বুথ থেকে ৫০ হাজার টাকা উত্তোলন করে। পরবর্তীকালে বুথের সিসি ক্যামেরার ভিডিও ফুটেজ দেখে তাদের শনাক্ত করে গত সোমবার রাতে রাজিব এবং তার বন্ধু, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী অমিত কুমার দাসকে আটক করে শাহবাগ থানা পুলিশ।






মন্তব্য চালু নেই