মেইন ম্যেনু

ছেলেদের কাছে মোটেও পাত্তা পেতেন না সানি

নীলছবির দুনিয়া ছেড়ে সানি লিওন এখন বলিউড দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন। তিনি এখন অনেকের স্বপ্নচারিণী। অথচ স্কুলে নাকি তিনি দেখতে রূপসী ছিলেন না, এ কারণে তার দিকে ফিরেও তাকাতো না ছেলেরা। অষ্টাদশী হওয়ার পর থেকে ছেলেদের আকর্ষণ পেতে শুরু করেন তিনি।

ছেলেদের কাছে মোটেও পাত্তা না পাওয়ার বিষয়টি নিজের মুখে স্বীকার করেছেন সানি। সম্প্রতি জুম টিভিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ৩৪ বছর বয়সী এই অভিনেত্রী বলেন, ‘কলেজে বইপত্র নিয়েই পড়ে থাকতাম। তবে কলেজে পা রাখার আগে আর দশজন শিক্ষার্থীর মতোই ছিলাম। কৈশোরে দেখতে উদ্ভট ছিলাম। আর আমার খুব বেশি বন্ধুও ছিলো না।’

সানি লিওন আরও বললেন, ‘তখন থেকেই ব্যবসা বুঝতাম। অদ্ভুত সব জিনিসপত্র বাজারজাতকরণের প্রতি ভালো লাগা ছিলো আমার। ভিডিও সম্পাদনা ও ফটোশপ ব্যবহার জানতাম। ১৮-১৯ বছর বয়সে সাধারণত এসব কেউ করে না। আঠারো ছোঁয়ার আগে কোনো ছেলের পাত্তা পাইনি।’

‘ইয়ে মেরা সুপারস্টার’ টিভি অনুষ্ঠানে নিজের অতীত নিয়ে অনেক কথা বলেছেন সানি। বলিউডে আসার আগে ইন্দো-কানাডিয়ান পর্নো তারকা ছিলেন তিনি। এমন ক্যারিয়ার বেছে নেওয়া প্রসঙ্গে ভারতের একটি নিউজ চ্যানেলে দেওয়া সাক্ষাৎকারে উপস্থাপকের তির্যক প্রশ্নের মুখে পড়ে আলোচিত হন তিনি।

পর্দায় ছেলেদের সঙ্গে যতোই ঘনিষ্ঠ আর অন্তরঙ্গ হন না কেনো, বাস্তবে নাকি সানি লাজুকলতা! তিনি নিজেই একথা জানান। তবে শুধু হিন্দি ছবি নয় পাঞ্জাবি ছবিতেও অভিনয় করতে চান লিওনি। সানির কথা, ‘ জন্মসূত্রে আমি পাঞ্জাবি। অভ্যাস না থাকায় এই ভাষাটা সঠিক ভাবে বলতে পারি না। কিন্তু বুঝতে পারি। সুযোগ পেলে আমি অবশ্যই পাঞ্জাবি ছবিতে অভিনয় করবো’

এদিকে সানি লিওন এখন ব্যস্ত ‘মাস্তিজাদে’র প্রচারণা নিয়ে। এতে দ্বৈত চরিত্রে দেখা যাবে তাকে। একজনের নাম লিলি, অন্যজন লায়লা। তারা একে অপরের চেয়ে অনেক আলাদা। নতুন ছবির অভিজ্ঞতার কথা জানিয়ে তিনি বলেন, ‘চিত্রনাট্য পড়ে বেশকিছু দৃশ্য ও সংলাপ নিয়ে প্রথমে অসন্তুষ্ট ছিলাম। নির্মাতাদের জানিয়েছি, আমি এগুলোতে স্বচ্ছন্দ হতে পারবো না। পরবর্তীতে প্রযোজক ও পরিচালক মিলে চিত্রনাট্য পাল্টেছেন।’

মিলাপ জাভেরি পরিচালিত ‘মাস্তিজাদে’ মুক্তি পাবে আগামী ২৯ জানুয়ারি। এতে সানি লিওনের সহশিল্পী তুষার কাপুর ও বীর দাস।






মন্তব্য চালু নেই