মেইন ম্যেনু

ছেলের দেওয়া আগুনে দগ্ধ বাবার মৃত্যু

ফরিদপুরে ছেলের দেওয়া আগুনে দগ্ধ হওয়ার পর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন এ টি এম রফিকুল হুদা (৪৮)।

বুধবার সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

রফিকুল গত ছয় দিন ধরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন ছিলেন। বার্ন ইউনিটের আবাসিক চিকিৎসক পার্থ শঙ্কর পাল জানান, বুধবার সকালে তার মৃত‌্যু হয় ।

এদিকে রফিকুল হুদার ভাই এ টি এম সিরাজুল হুদা এই তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, আজ ভোরে রফিকুল মারা যান। এখন তার মরদেহ ঢাকা থেকে ফরিদপুরে নিয়ে আসা হবে।

রফিকুলের সদ্য এসএসসি উত্তীর্ণ ছেলে মুগ্ধ তার বাবার কাছে একটি মোটর সাইকেল চেয়েছিল। কিনে দিতে রাজি না হওয়ায় ক্ষুব্ধ হয়ে সে পেট্রোল ঢেলে কমলাপুরের বাড়িতে আগুন দেয়। এতে বাবা রফিকুল হুদা গুরুতরভাবে দগ্ধ হন। আর মা সিলভিয়া হুদা সামান্য দগ্ধ হন।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, এই ঘটনায় পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা করা না হলে পুলিশই বাদী হয়ে মামলা করবে।






মন্তব্য চালু নেই