মেইন ম্যেনু

আওয়ার নিউজের সাথে একান্ত আলাপচারিতা

“ছড়ায় ছড়ায় সাক্ষাতকার, মজা করে সময় পার”

সাহিত্য জাতির দর্পন। এই সাহিত্য আবার হতে পারে দিন বদলের হাতিয়ার। কিন্তু বর্তমানে সেই সাহিত্য রসে লেগে গেছে অস্বচ্ছতার ছোঁয়া। তারপরও স্বচ্ছ-অস্বচ্ছতার ভিতর দিয়েই চলছে সাহিত্য চর্চা। পুরুষের পাশাপাশি নারীরাও বরাবর সাহিত্যে দখল করে নিয়েছে একটি বিশেষ স্থান। অন্যায় আর নির্যাতনের বিরুদ্ধে চলেছে তাদের কলম।

সম্প্রতি দেশের দক্ষিণাঞ্চলের একজন প্রতিভাবান লেখিকার সাথে সাক্ষাতকার মূলক একান্ত আলাপচারিতায় বসেন আওয়ার নিউজ বিডি’র বার্তা সম্পাদক আবু রায়হান মিকাইল। দীর্ঘ আলাচারিতায় উঠে এসেছে চমকপ্রদ কিছু কথামালা। তবে আলাপচারিতার পুরোটা সময়ই ছিল ছন্দময়। আওয়ার নিউজ বিডি’র ২য় বর্ষপূতি উপলক্ষ্যে এই চমকপ্রদ সাক্ষাতকারটি নেওয়া হয়েছিল। শুরুতে আমরা লেখিকার সংক্ষিত পরিচয় জেনে নিই।

লেখিকা: সাবিলা ইয়াসমিন (মিতা)। তিনি সাতক্ষীরা জেলার পারুলিয়া ইউনিয়নের সেকেন্দ্রা গ্রামের জন্মগ্রহণ করেন। ছোটবেলা থেকেই তার সাহিত্য অঙ্গনে পদচারণ। তিনি একাধারে ছড়াকার, গীতিকার, কবি, সম্পাদিকা। তার সম্পাদিত পত্রিকা ‘স্বপ্নমুকুল’। পেশায় একজন ডাক্তার। সাহিত্যে বিশেষ অবদানের জন্য তিনি কবি সিকেন্দার আবু জাফর পদক (২০০৯) ও দৈনিক দৃষ্টিপাত সাহিত্য পদক (২০০৮) প্রাপ্ত হন। আওয়ার নিউজ বিডি’র পাঠকদের জন্য তার ছন্দময় সাক্ষাতকারটি এবার উপস্থাপন করা হলোঃ

আওয়ার নিউজ বিডি :

কেমন আছেন আপুমনি
যাচ্ছে কেমন দিন,
আওয়ার নিউজ বিডি থেকে
শুভেচ্ছা নিন।

ডা. সাবিলা ইয়াসমিন (মিতা) :

শুভেচ্ছাটা নিলাম তুলে
আছি ভাল বেশ,
মনের মাঝে স্বপ্ন আঁকা
সুশীল পরিবেশ।

আওয়ার নিউজ বিডি :

লেখালেখির এই জগতে
আপনি কেন এলেন?
বলেন দেখি বেশি বেশি
কার প্রেরণা পেলেন?

ডা. সাবিলা ইয়াসমিন (মিতা):

প্রেরণাটা পেলাম সবার
পেলাম ভালবাসা,
লেখক হওয়ার স্বপ্ন নিয়েই
এ জগতে আসা।

আওয়ার নিউজ বিডি :

লেখালেখি সম্পাদনা
এছাড়া কি করেন?
লেখালেখির হাতেখড়ি
কবে থেকে ধরেন?

ডা. সাবিলা ইয়াসমিন (মিতা) :

ডাক্তারী ও শিক্ষাকতা
এর মাঝেতে করি,
লেখালেখির হাতেখড়ি
ছোট থেকেই ধরি।

আওয়ার নিউজ বিডি :

প্রথম লেখা ছাপলো কবে
কোনসে পত্রিকাতে,
আওয়ার নিউজ পাঠক যারা
বলেন সবার সাথে।

ডা. সাবিলা ইয়াসমিন (মিতা) :

প্রথম লেখা ছাপলো আমার
দুই হাজার পাঁচে,
লোকসমাজ পত্রিকা সেটা
বললাম সবার কাছে।

আওয়ার নিউজ বিডি :

অনুভূতি ছিল কেমন সেদিন
আপনার মাঝে,
জানতে যে চাই সেই কথাটা
ছন্দ ছড়ার ভাঁজে।

ডা. সাবিলা ইয়াসমিন (মিতা) :

সেই দিনের সেই মহা খুশি
বুঝায় কেমন করে,
যার পরশে মনটা আমার
আজও আছে ভরে।

আওয়ার নিউজ বিডি :

আপুমনি এবার তবে আসল
কথায় আসেন,
গল্প নাকি ছড়া লেখা
কোনটা ভালবাসেন?

ডা. সাবিলা ইয়াসমিন (মিতা) :

গল্প ছড়া কাব্য কথা
সবই লাগে ভাল,
তবু যেন ছড়া আমার
জাগায় আশার আলো।

আওয়ার নিউজ বিডি :

ছড়া নাকি দিন বদলের
শ্রেষ্ঠ হাতিয়ার,
ভাবেন আপনি কতটুকু
বলেন দেখি সবার।

ডা. সাবিলা ইয়াসমিন (মিতা) :

ভাবাভাবির কিবা আছে
এই কথাটা ঠিক,
ছড়া একদিন সবার কাছে
বদলে দেবে দিক।

আওয়ার নিউজ বিডি :

ছড়ায় ছড়ায় এবার তবে
অন্যদিকে চলেন,
সবচেয়ে কি বড় আশা
একটু যদি বলেন?

ডা. সাবিলা ইয়াসমিন (মিতা) :

বড় আশা বলতে গেলে
মদিনাতে যাওয়া,
সফল হবো কতটুকু
জানিনা এই চাওয়া।

আওয়ার নিউজ বিডি :

কেবা আপনার প্রিয় মানুষ
কেবা প্রিয় কবি,
ভবিষ্যতে সামনে তলার
জানান কিছু হবি।

ডা. সাবিলা ইয়াসমিন (মিতা) :

রাসুল আমার প্রিয় মানুষ
নজরুল প্রিয় কবি,
ভাল কিছু রেখে যাওয়া
মনে জাগে হবি।

আওয়ার নিউজ বিডি :

আওয়ার নিউজ পাঠকদের কি
বলার কিছু আছে?
বলতে পারেন খোলা মনে
সবার কাছে কাছে।

ডা. সাবিলা ইয়াসমিন (মিতা) :

আমার লেখা পাঠক হৃদয়
একটু পেলে ঠাঁই,
পাঠকগণের কাছে আমি
আর কিছু না চাই।

আওয়ার নিউজ বিডি :

আপুমনি এবার তবে
বিদায় নেওয়া যাক,
আবার পরে বলব কথা
আজ এখানেই থাক।

ডা. সাবিলা ইয়াসমিন (মিতা) :

ভুল যদি বলে থাকি
ক্ষমা চেয়ে নিলাম,
বিদায় বেলা সবাইকে
আমার সালাম দিলাম।

বিঃদ্রঃ লেখিকার বিধি নিষেধের কারণে তার ছবিটি প্রকাশ করা সম্ভব হয়নি।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই