মেইন ম্যেনু

জঙ্গিবাদে উসকানির প্রমাণ মেলেনি জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে

ভারতের বিতর্কিত ইসলামী চিন্তাবিদ, বক্তা ও লেখক জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে জঙ্গিবাদে উসকানির অভিযোগের প্রমাণ মেলেনি বলে জানিয়েছে মহারাষ্ট্র স্টেইট ইন্টেলিজেন্স ডিপার্টমেন্ট (এসআইডি)। সংস্থাটি বলছে, দেশে ফিরলে তার বিরুদ্ধে কোনো মামলা দায়ের ও গ্রেফতার করা হবে না।

মঙ্গলবার ভারতের প্রভাবশালী দৈনিক ‘দ্য হিন্দু’ এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে। স্টেইট ইন্টেলিজেন্স ডিপার্টমেন্টের বিশেষ তদন্ত দল মহারাষ্ট্র সরকারের কাছে তদন্ত প্রতিবেদন হস্তান্তর করেছে। এতে বলা হয়েছে, ভারতে ফিরলে জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের ও তাকে গ্রেফতার করা হবে না।

প্রাথমিক তদন্তের অংশ হিসেবে ভারতের ভেতরে এবং বাইরে দেওয়া জাকির নায়েকের শতাধিক ইউটিউব ভিডিও পর্যবেক্ষণ করে দেখেছে এসআইডি। এসআইডির এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা বলেন, জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের (আইএস) প্রসারে নায়েকের বক্তৃতার প্রভাব রয়েছে বলে দাবি ওঠার পর হায়দারাবাদের গোয়েন্দা সংস্থাসহ অন্যান্য গোয়েন্দা সংস্থা তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করে সেগুলো যাচাই-বাছাই করেছে।

দেশটির জ্যেষ্ঠ এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, ‘ইংরেজি ভাষী এ ধর্মপ্রচারকের বিরুদ্ধে কোন অভিযোগের প্রমাণ পাওয়া যায়নি। শুধু ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের অভিযোগ গঠন করা যেতে পারে। কিন্তু তার বক্তৃতা থেকে এ বিষয়ে প্রমাণ পাওয়া সম্ভব নয়। আমরা তার চলাফেরার ওপর নজরে রাখছি। যদি তিনি তার অবস্থান থেকে সরে যান, তাহলে আমরা তখন তার বিরুদ্ধে অভিযোগ আনতে পারি। বর্তমানে তাকে শুধুমাত্র ঘনিষ্ঠভাবে পর্যবেক্ষণ করছি।’

পুলিশের এই কর্মকর্তা প্রাথমিক তদন্ত প্রতিবেদন ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করেছেন। এদিকে সোমবার জাকির নায়েকের দেশে ফেরার কথা থাকলেও তিনি ফেরেননি। ভারতে ফিরলে জেরার মুখে পড়তে পারেন এমন আশঙ্কায় সৌদিতে ওমরাহ শেষে তিনি আফ্রিকা যাচ্ছেন বলে জানা গেছে।

মুম্বাই পুলিশ বলছে, ওমরাহ শেষে জাকির নায়েকের সোমবার সকাল ৮টায় মুম্বাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের কথা ছিল। পিস টিভিতে জাকির নায়েকের বিভিন্ন বক্তৃতা নিয়ে যেসব প্রশ্ন ও জঙ্গিবাদে মদদ দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে ভারতে ফেরামাত্র তাকে সে সব বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে বলেও জানিয়েছিল মুম্বাই পুলিশ।






মন্তব্য চালু নেই