মেইন ম্যেনু

জঙ্গিবাদ নিয়ে ‘খেলছে’ আ. লীগ

জঙ্গিবাদ নিয়ে আওয়ামী লীগ ‘খেলছে’ বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। এ খেলার শুরু থেকে বিএনপির পক্ষে আমরা সরকারকে বলে আসছিলাম, মত প্রকাশের স্বাধীনতা হরণ করবেন না, এতে গণতন্ত্রের পথ রুদ্ধ হয়ে পড়বে, জঙ্গিবাদ মাথাচাড়া দেবে।

শনিবার (২৫ জুন) রাজধানীর নয়াপল্টনের মওলানা ভাসানী মিলনায়তনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য ড. মনিরুজ্জামান মিঞার স্মরণসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। জিয়া পরিষদের ব্যানারে এ স্মরণসভার আয়োজন করা হয়।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘জঙ্গিবাদের আগুন নিয়ে খেলায় সমগ্র জাতিকে ধ্বংসের দিকে যাবে বলেও সতর্ক করা হয়েছিল সরকারকে। এখন অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছে জাতি সেই ভয়াবহ পরিস্থিতির দিকে এগুচ্ছে।

ঢাকায় গুলশানে ইতালীয় নাগরিক তাবেলা হত্যার পর বিএনপির পক্ষে সরকারের প্রতি আমদের আহ্বান ছিল, সব রাজনৈতিক দলকে নিয়ে একটি জাতীয় কনভেনশন ডাকার। এতোদিনেও সরকার সে আহ্বানে সাড়া দেয়নি। এখন ক্ষমতাসীন দলের দু-একজন নেতা বলছেন, জাতীয় কনভেনশন ডাকার সময় এখনো হয়নি। আমি জানি না, কবে এই সময় হবে?’

মির্জা ফখরুল প্রশ্ন রেখে বলেন, ‘জঙ্গিবাদ নিয়ে যখন আর কিছু করার সময় থাকবে না, তখন কি এই কনভেনশন ডাকার সময় থাকবে?’

ক্ষমতাসীনদের সমালোচনা করে তিনি বলেন, ‘দেশে আজ গণতন্ত্র নেই, আইনের শাসন নেই। আসলে গণতন্ত্রের মুখোশে দেশে একদলীয় শাসন চলছে। এখানে ভিন্নমতের কেউ কোনো কথা বলতে পারে না। কথা বললেই তাদের ওপর নেমে আসে অত্যাচার-নির্যাতন। শুধু বিএনপি কিংবা ২০ দল নয়; যারাই সত্য কথা বলবে, সরকারের বিরুদ্ধে কথা বলবে-তাদের উপরই এ নির্যাতন নেমে আসবে।’

বিএনপির প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক ও জিয়া পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান কবীর মুরাদের সভাপতিত্বে এতে আরো বক্তব্য রাখেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. এমাজউদ্দীন আহমদ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) অধ্যাপক ডা. আব্দুল কুদ্দুস, আয়োজক সংগঠনের ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই