মেইন ম্যেনু

জঙ্গিরা মানুষ না, মুসলমানও না

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী বলেছেন, ‘আমরা বিজয়ী জাতি। জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে আমরা বিজয়ী হবোই। জঙ্গিরা মানুষ না, মুসলমানও না। এরা মানুষরূপী শয়তান। এদেরকে বাংলার মাটি থেকে উৎখাত করতে হবে।’

বুধবার (১৩ জুলাই) বিকেলে রাজধানীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সন্ত্রাসবাদ ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে ঢাকা মহানগর যুবলীগ দক্ষিণ আয়োজিত যুব সমাবেশে এসব কথা বলেন কৃষিমন্ত্রী।

তিনি বলেন, ‘এসব সন্ত্রাসীদের বিচারের মুখোমুখি করা হবে। আইনের মাধ্যমেই একদিন এদের শেষ পরিণতির দিকে নিয়ে যেতে হবে আমাদের। এদেশে যুদ্ধাপরাধী, বঙ্গবন্ধুর খুনির বিচার হয়েছে। সন্ত্রাসীদেরও বিচার হবে।’

মতিয়া চৌধুরী বলেন, ‘শেখ হাসিনার পদভারে জঙ্গিবাদ নিশ্চিহ্ন ও নিষ্পেষিত হবে। শেখ হাসিনার মাত্র দুটি পা নয়, ১৬ কোটি শান্তিকামী মানুষের পায়ের শক্তি এখন শেখ হাসিনার পায়ে, এটা জঙ্গিদের বুঝতে হবে।’

কৃষিমন্ত্রী আরো বলেন, ‘আজকে আমাদের আহ্বান ‘রুখে দাঁড়াও বাংলাদেশ’। আমি বিশ্বাস করি শেখ হাসিনার এই আহ্বান বাংলাদেশের প্রতিটি মানুষের অন্তরের আহ্বান। যদি তাই না হতো তাহলে গুলশানে ও শোলাকিয়ায় যেসব জঙ্গিরা মারা গেছে, তাদের স্বজনরা তাদের লাশ নিতে আসেনি। মর্গে পড়ে থাকে ওই লাশ। লজ্জা, ঘৃণা এবং ধিক্কার জানাই ওইসব সন্তানদের। তাদের মায়েরা মানুষের সামনে চোখের জল পর্যন্ত ফেলে না। এর চাইতে জঘন্য জীবন আর কী হতে পারে? ছেলের জন্য মা চোখের জল ফেলতে পারে না লজ্জা, ঘৃণার ভয়ে। ধিক সেই সন্তান, জঙ্গিকে। যার মা একটু কাঁদতেও পারে না।’

মতিয়া চৌধুরী বলেন, ‘ষড়যন্ত্রকারী একটি গোষ্ঠী জঙ্গিদের প্রশ্রয়, লালন করছে। এই জঙ্গিবাদের বিষাক্ত দাঁত সুজলা সুফলা বাংলাকে আচ্ছন্ন করছে, রক্তাক্ত করছে। আমি বলি, খালেদা জিয়া অভ্যুত্থান দেখা আপনার একটা স্বপ্ন বিলাস। সোয়ামী (জিয়াউর রহমান) যে পথে গেছে বৌ (খালেদা জিয়াও) সেই পথেই যাচ্ছে।’

তিনি আরো বলেন, ‘সন্ত্রাসী হামলার পর বিএনপির এক নেতা দেখলাম শেখ হাসিনার পদত্যাগ দাবি করেছেন। আমি প্রশ্ন রাখতে চাই- আমেরিকায় তো সন্ত্রাসী হামলা হয়েছে, সেখানে কে ওবামার পদত্যাগ দাবি করেছে? এসব কথা বলে কোন লাভ হবে না।’

সিঙ্গাপুরে বাংলাদেশিকে জঙ্গি অর্থায়নের দায়ে শাস্তি দেয়ার কথা উল্লেখ করে মতিয়া বলেন, ‘গ্রামে একটা কথা আছে- এক হাঁসে নষ্ট করে সাত পুকুরের পানি। এই কয়েকজন দুষ্কৃতিকারীর জন্য বিদেশে বাঙালিদের চাকরির বাজার সঙ্কুচিত হচ্ছে। আর আামাদের দিকে অঙ্গুলি নির্দেশ করা হচ্ছে।’

পাড়া-মহল্লায় সমাজ ও রাষ্ট্রবিরোধী কর্মকাণ্ড যারা করে তাদের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর হাতে সোপর্দ করার জন্য যুবলীগের নেতা-কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান মতিয়া।

ঢাকা দক্ষিণ শাখা যুবলীগের সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাটের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মাকসুদ কামাল, যুবলীগ চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক হারুন-অর-রশীদ, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোল্লা মো. আবু কাওছার, মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নাজমা আক্তার, যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক অপু উকিল প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই