মেইন ম্যেনু

জন্মদিন পালন না করায় অভিমানে নদীতে ঝাঁপ

জেলার সিদ্ধিরগঞ্জে ছেলের জন্মদিন পালন না করায় বাবার সঙ্গে অভিমান করে মেয়ে সাদিয়া মেহজাবিন লুবনা (২৬) শীতলক্ষ্যা নদীতে ঝাঁপ দিয়েছেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে লুবনা কাঁচপুর সেতুর উপর থেকে নদীতে ঝাঁপ দেয় বলে পুলিশ জানিয়েছে। তবে ডুবুরি দল উদ্ধার অভিযান চালিয়েও লুবনাকে উদ্ধার করতে পারেনি।

লুবনা ঢাকার কদমতলী থানার মাতুইয়াল এলাকার পাটোয়ারীবাড়ির ভাড়াটিয়া শরীফ মাহমুদ লিটনের স্ত্রী।

লুবনার বাবা মোশাররফ হোসেন বলেন, লুবনার শাহীন নামের একটি ছেলে আছে। বৃহস্পতিবার শাহীনের জন্মদিন ছিল। আনুষ্ঠানিকভাবে ছেলের জন্মদিন পালন না করায় লুবনা আমার সঙ্গে অভিমান করে বাসা থেকে বের হয়। দুপুরে কাঁচপুর সেতু এলাকায় পৌঁছে মোবাইলে কথাও হয়। তারপর আর তার মোবাইলে পাওয়া যাচ্ছে না।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সাহাদাত হোসেন জানান, লুবনা মোবাইল ফোনে তার বাবাকে বলে, আমি আত্মহত্যা করতে যাচ্ছি। আমার আত্মহত্যার জন্য কোনোভাবেই আমার স্বামী দায়ী নয়। আমার ছেলে শাহীনকে তোমরা দেখে রেখ। এ কথা বলেই লুবনা নদীতে ঝাঁপিয়ে পড়ে। এরপর থেকে তার মোবাইলটি বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে।

তিনি আরও জানান, পরে মোশাররফ হোসেন কাঁচপুরে ছুটে এসে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশকে বিষয়টি অবহিত করেন। পরে পুলিশ ঢাকার ফায়ার সার্ভিসের সদর দফতর ও সিভিল ডিফেন্সের ডুবুরি দলকে খবর দেয়।

ফায়ার সার্ভিসের সদর দফতরের স্টেশন অফিসার দেবাশিষ বিশ্বাসের নেতৃত্বে চার সদস্যের ডুবুরি দল কাঁচপুরে দুপুর ৩টায় এসে নদীতে তল্লাশি শুরু করে। সন্ধ্যা ৭টায় তল্লাশি স্থগিত করা হয়। শুক্রবার সকালে আবার নদীতে তল্লাশি করা হবে।






মন্তব্য চালু নেই