মেইন ম্যেনু

জমি দখলের অভিযোগ নিয়ে মুখ খুললেন হেমা

বলিউড অভিনেত্রী এবং বিজেপির আইনপ্রণেতা ড্রিম গার্ল খ্যাত হেমা মালিনী তাঁর বিরুদ্ধে আনা জমি দখলের অভিযোগ অস্বীকার করেন। বিতর্কের মুখে সোমবার হেমা বলেন, ‘‘ওই দুই হাজার বর্গমিটার জমিতে আমি নাচ শেখানোর অ্যাকাডেমি খুলব। এখনও কোনও অর্থ দেইনি। সরকারের যা আইন-কানুন আছে সে সবই মেনে চলব।… তবে মূল্য যাই হোক না কেন, আমি পুরো মূল্যই দিতে রাজি।”

মহারাষ্ট্রের বিজেপি সরকার হেমাকে আন্ধেরিতে কয়েক কোটি মূল্যের দুই হাজার বর্গমিটার জমি মাত্র ৭০ হাজার রূপিতে পাইয়ে দিয়েছে বলে অভিযোগ কংগ্রেসের।

তথ্য জানার অধিকার আইনে ভারতের আরটিআই (রাইট টু ইনফরমেশন)-য়ের কর্মী অনিল গালগালি হেমার বিরুদ্ধে জমি অধিগ্রহণের অভিযোগ আনেন।

তিনি বলেন, ‘‘এই প্রথম নয়, এর আগেও মুম্বাইয়ের শহরতলিতে হেমাকে জমি দেয়া হয়েছে৷ ১৯৯৭ সালে তৎকালীন শিবসেনা-বিজেপি জোট সরকার তাঁকে জমি দিয়েছিল৷ কিন্তু কোস্টাল রেগুলেশন জোনের জন্য তিনি ওই জমির উপর নির্মাণ কাজ করতে পারেননি।”

আগের জমি এখনও ফেরত দেননি হেমা৷ এর উপর নতুন করে জমি দেওয়া হল তাকে৷

প্রসঙ্গত, এর আগে আন্ধেরিতেই কংগ্রেসের রাজ্য সভার সদস্য রাজীব শুক্লার জন্য জমি বরাদ্দ করেছিল তৎকালীন কংগ্রেস সরকার৷ কিন্তু বিরোধীদের চাপে ২০১৪ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে লোকসভা ভোটের আগে সেই জমি ফিরিয়ে দিতে বাধ্য হন শুক্লা৷



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই