মেইন ম্যেনু

জলকেলিতে মাতবে হাজারো তরুণ-তরুণী

বাংলা নববর্ষকে বরণ করতে কাপ্তাইয়ের চিৎমরম ইউনিয়নে অনুষ্ঠিত হবে পার্বত্য চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী মারমা সম্প্রদায়ের সাংগ্রাই জলকেলি উৎসব।

১৫ এপ্রিল সকালে ঐতিহ্যবাহী চিৎমরম বৌদ্ধ মন্দির মাঠে সাংগ্রাই জল উৎসবে মাতোয়ারা হবে মারমা সম্প্রদায়ের হাজারো তরুণ-তরুণী। মারমা সংস্কৃতি সংস্থার (মাসস) উদ্যোগে এই বর্ণিল আয়োজন হলেও চিৎমরমের এই উৎসব পাহাড়ি-বাঙালির সম্প্রীতির মিলন মেলায় পরিণত হয়।

মারমা সংস্কৃতি সংস্থার (মাসস) সভাপতি প্রাক্তন কাপ্তাই উপজেলা চেয়ারম্যান প্রকৌশলী অংশুছাইন চৌধুরী জানান, ১৫ এপ্রিল শুক্রবার কাপ্তাইয়ে চিৎমরমে সাংগ্রাই উৎসবের মূল অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, বিশেষ অতিথি থাকবেন সাবেক পার্বত্য চট্টগ্রামবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার, অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখবেন সাংগ্রাই জল উৎসব উদযাপন কমিটির সদস্য সচিব এবং রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য প্রকৌশলী থোয়াইচিং মারমা। এ ছাড়া রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, রাঙ্গামাটি সেনা রিজিয়ন কমান্ডারসহ পার্বত্য জেলার বিভিন্ন পর্যায়ের গন্যমান্য ব্যক্তি উপস্থিত থাকবেন।

মাসসের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি অংশুছাইন চৌধুরী জানান, শুক্রবার চিৎমরমে ঐতিহ্যবাহী মারমা পোশাকে শত শত তরুণ-তরুণী জলকেলিতে মাতোয়ারা হবেন। জলকেলির নিয়ম হচ্ছে একটি বড় সামিয়ানার নিছে দুটি বড় নৌকায় মেশিনের সাহায্যে পানিতে ভর্তি করা হবে। দুটি নৌকার একটির পাশে অবস্থান নিবে মারমা তরুণদল আর অন্য নৌকার পাশে তরুণীদের দল। সাংগ্রাই উৎসবের মঞ্চে ওই সময় পরিবেশিত হবে মারমা সঙ্গীত। গান বা সঙ্গীতের মূর্চনায় তরুণ-তরুণীদের দল নৌকা থেকে একে অপরের গায়ে পানি ছিটিয়ে আনন্দ উপভোগ করবে। শুক্রবার পানি খেলার মূল উৎসব শুরু হবে সকাল ১১টায়।






মন্তব্য চালু নেই