মেইন ম্যেনু

জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলা চুক্তিতে স্বাক্ষর করেনি যে ১১ দেশ

বিশ্বে জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় স্বাক্ষরিত চুক্তিতে এখনও স্বাক্ষর করেনি ১১টি দেশ। জলবায়ু পরিবর্তনে তাদের ভুমিকা নগন্য এমন দাবি করে এসব দেশ জাতিসংঘের অধীনে এই চুক্তিতে স্বাক্ষর করেনি।

এই দেশগুলো হলো যুদ্ধ-বিধ্বস্ত সিরিয়া, লিবিয়া, উত্তর কোরিয়া এবং ভেনিজুয়েলা, উজবেকিস্তান, নেপাল, নিকারাগুয়া, পানামা, সেন্ট কিটস, নেভোস এবং টোঙ্গা। তাদের অভিযোগ জলবায়ু পরিবর্তনের জন্য পশ্চিমা বিশ্বের দেশগুলো দায়ী। তাই এটা তাদের দায়িত্ব।

জাতিসংঘের কর্মকর্তারা বলছেন, ১৯৫ টি দেশের মধ্যে ১৮৪টি দেশ জলবায়ু চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছে। কার্বন নিরসনে একযোগে কাজ করতে অঙ্গীকারবদ্ধ হয়েছে দেশগুলো।

চুক্তিতে স্বাক্ষর না করার কারণ হিসেবে বিভিন্ন দেশের যুক্তি বিভন্নরকম। উত্তর কোরিয়া পুরো বিশ্ব থেকেই আলাদা। তারা জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় প্যারিস সম্মেলনে অংশগ্রহেই করেনি। লিবিয়া নিজেদের সমস্যায় জর্জরিত। নেপাল জাতিসংঘের এই সম্মেলনে আগ্রহী হলেও সম্প্রতি তাদের দেশের ভয়াবহ ভূমিকম্পের ধাক্কাই এখনি সামলে উঠতে পারেনি।

জাতিসংঘের সহকারী মহাসচিব জানোস পাস্টর এপিকে বলেন,‘কিছু দেশ এই চুক্তিতে স্বাক্ষর করেনি। কোথাও এখনো যুদ্ধ চলছে। কেউ জাতীয় স্বার্থে আর কেউ অন্যান্য কারণ দেখিয়ে এই চুক্তিতে স্বাক্ষর করেনি।’

লাতিন আমেরিকার দেশ নিকারাগুয়ার মার্কিন বংশোদ্ভূত পল অকিস্ট বলেন, ‘যারা এই সমস্যা তৈরি করেছে তাদেরই সমাধান করতে হবে।’

বার্তা সংস্থা এপিকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে তিনি বলেন, ‘জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলা করাটা তাদের ঐতিহাসিক দায়িত্ব। এছাড়া এমন একটি পদ্ধতির আহবান জানান তিনি যেখানে ধনী দেশগুলো এই সঙ্কট মোকাবেলায় কার্যকরী ভূমিকা পালন করতে বাধ্য থাকবে।’

এছাড়াও অনেক দেশ জলবায়ু পরিবর্তনে খুব একটা ভূমিকা রাখবে না। কারণ বৈশ্বিক উষ্ণতায় তাদের খুব একটা প্রভাব নেই। বাংলাদেশসহ সমুদ্র উপকূলবর্তী বেশ কিছু দেশ এই চু্ক্তিতে স্বাক্ষর করলেও তাদের তাকিয়ে থাকতে হবে পশ্চিমা দেশগুলোর দিকে তাকিয়ে যারা মূলত এই সমস্যার তৈরি করেছে।

বড় দেশগুলোর মধ্যে স্বাক্ষর করেনি উজবেকিস্তান ও ভেনিজুয়েলা। তেল উৎপাদনকারী এই দেশগুলো প্রায়ই পশ্চিমা দেশগুলোর উপর জলবায়ু পরিবর্তনে নেতিবাচক ভূমিকার জন্য ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

ভেনিজুয়েলার ইকো-সোশ্যালিজম মন্ত্রী গিলার্মো বারেটো জানায়, ধনী দেশগুলো যতদিন পর্যন্ত তাদের প্রতিশ্রুতি পূরণ করবে না ততদিন তারা স্বাক্ষর করবেনা।

তবে কিছু দেশ অনেক প্রতিবন্ধকতা থাকা সত্ত্বেও চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছে। যুদ্ধবিধ্বস্ত এই দেশটিও জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় অঙ্গীকার করেছে। এছাড়া দারিদ্রপীড়িত দ্বীপ নিউও এই চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছে।

সূত্র: এপি






মন্তব্য চালু নেই