মেইন ম্যেনু

আটক ৮ : তদন্ত কমিটি গঠন

জাকাতের কাপড় নিতে গিয়ে জীবন গেল ২৬ জনের

ময়মনসিংহ শহরে জাকাতের কাপড় নিতে গিয়ে হুড়োহুড়িতে পদদলিত হয়ে শিশুসহ ২৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছে অর্ধশতাধিক। আহতদের ময়মনসিংহ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় ৮ জনকে আটক করেছে পুলিশ। ঘটনা তদন্তে পুলিশের ৩টি কমিটি গঠন করা হয়েছে। হতাহতের ঘটনায় প্রধানমন্ত্রী ও স্পিকার শোক জানিয়েছেন।

শুক্রবার ভোরে ময়মনসিংহ শহরের পৌরসভা সংলগ্ন অতুল চক্রবর্তী সড়কে নূরানী জরদা ফ্যাক্টরি কার্যালয়ে এই হতাহতের ঘটনা ঘটে।

পুলিশ সুপার মইনুল হক জানান, এই ঘটনায় ওই ফ্যাক্টরির মালিক শামীম ওরফে নূরানী তালুকদার ওরফে শামীমসহ ৮ জনকে আটক করা হয়েছে। এ পর্যন্ত ২৬ জনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন তিনি। মৃতের সংখ্যা বাড়তে পারে বলেও জানিয়েছেন।

হতাহতের খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস, পুলিশ, এলাকাবাসী আহতদের উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে সব মিলিয়ে ২৭ জনের মৃত্যুর খবর পুলিশের নিয়ন্ত্রণ কক্ষে গেলেও সবগুলো লাশ পায়নি বলে পুলিশ জানিয়েছে।

জানা গেছে, ময়মনসিংহ পৌরসভা কার্যালয়ের পাশে ব্যবসায়ী শামীমের নূরানী জরদা কারখানা কার্যালয়ে শুক্রবার সকালে জাকাতের কাপড় দেয়ার কথা ছিল। এই খবরে শহরের বস্তি এবং ব্রহ্মপুত্র পাড়ের চর এলাকার নারী, পুরুষ ও শিশু বৃহস্পতিবার রাত ১০টার পর থেকে ভিড় জমাতে থাকে। শুক্রবার সেহরির সময় জরদা ফ্যাক্টরির মূল গেইট খুলে দিলে সবাই একসঙ্গে কাপড়ের জন্য হুমড়ি খেয়ে পড়ে। পরে ধাক্কাধাক্কির এক পর্যায়ে পদদলিত হয়ে ২৬ জনের মৃত্যু হয়।






মন্তব্য চালু নেই