মেইন ম্যেনু

জাকির নায়েকের বক্তব্য তদন্তের নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর

ইসলামিক রিসার্চ ফাউন্ডেশন ও পিস টিভির প্রতিষ্ঠাতা জাকির নায়েকের বক্তব্য তদন্ত করতে পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছেন মহারাষ্ট্র সরকার। মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়নবিশ বৃহস্পতিবার এ নির্দেশ দেন। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়ার।

তার আগেই মুম্বাইয়ে অবস্থিত জাকির নায়েকের প্রতিষ্ঠিত ফাউন্ডেশনের কার্যালয়ের চারপাশে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের মোতায়েন করা হয়।

জাকির নায়েকের দেওয়া বক্তব্যে উৎসাহিত হয়ে তরুণেরা জঙ্গিবাদে জড়িয়ে পড়ছে বলে কোনো কোনো মহল অভিযোগ তুলেছে। এমন অভিযোগের ভিত্তিতে মুম্বাইয়ের মুখ্যমন্ত্রী তা তদন্ত করার নির্দেশ দিলেন।

ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারও জাকির নায়েকের বক্তব্যকে ‘আপত্তিকর’ আখ্যা দিয়ে তার বিরুদ্ধে ‘যথাযথ পদক্ষেপ’ নেওয়ার ইঙ্গিত দেয়।

দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জাকির নায়েকের বক্তব্য যাচাই করে করণীয় ঠিক করবে বলে জানিয়েছে।

কেন্দ্রীয় তথ্যমন্ত্রী এম ভেঙ্কাইয়া নাইডু দিল্লিতে সাংবাদিকদের বলেন, “স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় তার বক্তব্য খতিয়ে দেখবে। সেগুলো পর্যালোচনার পর তার বিরুদ্ধে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। গণমাধ্যমে তার বক্তব্য যেভাবে এসেছে তা খুবই আপত্তিকর।

গুলশানে রেস্তোরাঁয় হামলাকারী দুই জঙ্গি জাকির নায়েককে অনুসরণ করতেন। গুলশানের ওই রেস্তোরাঁয় এক হামলাকারী ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের এক নেতার ছেলে রোহান ইমতিয়াজ। তিনি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে জাকির নায়েককে নিয়ে প্রচার চালিয়েছিলেন বলে বাংলাদেশের গণমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয়।

উল্লেখ্য, গত শুক্রবার রাতে গুলশানে রেস্টুরেন্টে হামলায় দেশি-বিদেশি ২০ জন নিহত এবং দুই পুলিশ সদস্য শাহাদাতবরণ করেন। নিহতদের মধ্যে ৯ জন ইতালীয়, ৭ জন জাপানি ও একজন ভারতের নাগরিক। বাকি তিনজন বাংলাদেশি। নিহত সাতজন জাপানির মধ্যে ছয়জনই বাংলাদেশে মেট্রোরেল প্রকল্পের সমীক্ষা কাজে নিয়োজিত ছিলেন।






মন্তব্য চালু নেই