মেইন ম্যেনু

জাতীয় পরিচয়পত্র ছাড়া যেভাবে সিম নিবন্ধন

ডাক, তার ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বলেছেন, ৩০ এপ্রিলের মধ্যেই বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে সিম নিবন্ধন সম্পন্ন করতে হবে। তবে যাদের কাছে জাতীয় পরিচয়পত্র নেই তাদের ক্ষেত্রে পাসপোর্ট, ড্রাইভিং লাইসেন্স এবং জন্ম নিবন্ধন সনদ প্রাথমিকভাবে নিবন্ধনের ক্ষেত্রে গ্রহনযোগ্য হবে। এ ছাড়া যারা জাতীয় পরিচয়পত্রের জন্য আবেদন করেছেন তাদের আবেদন নম্বরটিও গ্রহন করা হবে। পরবর্তী সময়ে তারা জাতীয় পরিচয়পত্র হাতে পেলে স্থায়ী নিবন্ধন সম্পন্ন করবেন।

রোববার দুপুরে রাজধানীর ফার্মগেটে গ্রামীণ ফোন সেন্টারে গিয়ে সাধারণ নাগরিকের মতোই লাইনে দাঁড়িয়ে নিজের সিমকার্ডের বায়োমেট্রিক নিবন্ধন সম্পন্ন করেন তারানা হালিম। নিবন্ধন শেষে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, নিবন্ধনের বিরুদ্ধে একটি মহল ভুল তথ্য দিয়ে অপপ্রচার চালালেও সাধারণ মানুষ বিপুল আগ্রহ নিয়েই নিবন্ধন সম্পন্ন করছে। প্রতিটি নাগরিকের নিরাপদ টেলিযোগাযোগ সেবা নিশ্চিত করতেই এ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এ ব্যবস্থায় কোনভাবেই গ্রাহকের ফিঙ্গারপ্রিন্ট সংরক্ষণ করা হচ্ছে না বলেও তিনি জানান।

প্রতিমন্ত্রী সাংবাদিকদের জানান, তিনি নিজে তিনটি সিমকার্ড ব্যবহার করেন। কিন্তু অন্য দু’টি সঙ্গে না থাকায় নিয়ম অনুযায়ী একটি সিমকার্ডেরই নিবন্ধন সম্পন্ন করেছেন। দু’এক দিনের মধ্যে সাধারণ নাগরিকের মত নিজে সেন্টারে এসে বাকী দু’টি সিমকার্ডের নিবন্ধন সম্পন্ন করবেন। সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে শুধুমাত্র গ্রাহকের জাতীয় পরিচয়পত্রে থাকা তথ্য যাচাই করা হচ্ছে। এক্ষেত্রে কারও ফিঙ্গারপ্রিন্ট বা আঙুলের ছাপ সংরক্ষণ করা হচ্ছে না।






মন্তব্য চালু নেই