মেইন ম্যেনু

জাতীয় সঙ্গীতে ‘না’ ব্রিটিশ ছায়া প্রধানমন্ত্রীর

যুদ্ধের বীরদের স্মরণ এক অনুষ্ঠানে জাতীয় সঙ্গীত না গেয়ে নীরবে দাড়িয়ে লইলেন ব্রিটিশ লেবার পার্টির নতুন নেতা জেরেমি করবিন। সেদেশে বিরোধী দলীয় নেতাকে ছায়া প্রধানমন্ত্রী হিসেবেই দেখা হয়। এটি ছিলো লেবার দলের নেতা নির্বাচিত হবার পর করবিনের প্রথম সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অনুষ্ঠানে যোগদান।

মঙ্গলবার রাতের ওই অনুষ্ঠানে জাতীয় সঙ্গীত গাইতে অস্বীকৃতি জানানোর বিষয়ে তিনি বলেন, এটা ছিলো ‘শ্রদ্ধাপূর্ণ’। ‘ব্যাটল অব ব্রিটেন’ নামে খ্যাত দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের একটি বিমান যুদ্ধের ৭৫ তম বার্ষিকীতে ওই যুদ্ধে নিহত বিমান সেনাদের স্মরণে লন্ডনের সেন্ট পল গির্জায় প্রার্থনাসভার আয়োজন করা হয়।

প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন, পোল্যান্ডের প্রেসিডেন্ট এবং ব্রিটেনের প্রায় সব দলের শীর্ষ রাজনীতিক, পদস্থ ব্যক্তি ও রাজন্যবর্গের এই সমাবেশে সবাই যখন ‘গড সেভ দ্য কুইন’ বলে জাতীয় সঙ্গীত গাইছিলেন তখন করবিন চুপ করে দাঁড়িয়ে থাকেন। উল্লেখ্য, ৬৬ বছর বয়সী করবিন হলেন একজন বিখ্যাত শান্তিবাদী এবং প্রজাতান্ত্রিক রাষ্ট্র ব্যবস্থার প্রবক্তা।

করবিনের একজন মুখপাত্র বলেছেন, করবিন যুদ্ধে অংশগ্রহণকারীদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানোর জন্যই অনুষ্ঠানে যোগ দেন। তবে তিনি জাতীয় সঙ্গীত গাননি। লেবার পার্টির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, মি. করবিন শ্রদ্ধাবনত চিত্তে নিরবে দাঁড়িয়েছিলেন।

এদিকে, এই অনুষ্ঠানে যোগদানের জন্য মি. করবিন যে পোশাক পরেছিলেন তারও সমালোচনা হয়েছে ব্রিটিশ মিডিয়ায়। তিনি ম্যাচিং করা স্যুটের পরিবর্তে ভিন্ন রঙের কোট ও ট্রাউজার এবং নীল রঙের শার্টের সঙ্গে রীতিবিরুদ্ধভাবে লাল রঙের টাই পরেন। কিন্তু তার শার্টের বোতামগুলি যথাযথভাবে লাগানো ছিলো না। সূত্র: ডেইলি মেইল






মন্তব্য চালু নেই