মেইন ম্যেনু

জাতীয় স্কেলে বেতনের দাবি ইবতেদায়ি শিক্ষকদের

৩০ বছর ধরে বঞ্চিত স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসা শিক্ষকদের জন্য জাতীয় স্কেলে বেতনের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসা শিক্ষক সমিতি। সারাদেশে ৫ হাজার ৩২৯ টি স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসার ২০ হাজারের বেশি শিক্ষক এখনও মানবেতর জীবনযাপন করে শিক্ষাদান করছেন।

বুধবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ইবতেদায়ি মাদ্রাসা শিক্ষক সমিতির কেন্দ্রীয় কমিটির আয়োজনে এক সমাবেশ থেকে এ দাবি জানানো হয়।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, মহাজোট সরকারের শিক্ষামন্ত্রী বিগত দিনে অনেক প্রতিশ্রুতি ও মন্ত্রণালয়ের অনেক সিদ্ধান্ত থাকলেও আজ পর্যন্ত তা বাস্তবায়ন না হওয়ায় স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসা শিক্ষকরা হতাশ।

বক্তরা বলেন, ১৯৮৪ সালে মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড কর্তৃক রেজিস্ট্রেশনপ্রাপ্ত প্রায় ১৯ হাজার মাদ্রাসা ছিল কিন্তু তা হ্রাস পেতে পেতে দুই তৃতীয়াংশ মাদ্রাসা বিলুপ্তির পথে। ২০১১ সালের মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড কর্তৃক হিসাব অনুযায়ী প্রায় ৬ হাজার ৮৪৮টি স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসা আছে যার শিক্ষক সংখ্যা প্রতিটি মাদ্রাসায় ৫ জন করে কর্মরত হলেও ৩৪ হাজার ২৪০ শিক্ষক কর্মরত আছেন।

বক্তরা আরো বলেন, ১৯৯৪ সালের একই পরিপত্রে বে সরকারি প্রাইমারি ও স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসাগুলো ৫০০ টাকা ভাতাপ্রাপ্ত হতেন। পরবর্তীতে ধাপে ধাপে বেসরকারি প্রাইমারি শিক্ষকদের বেতন ভাতা উন্নীত করে এবং ২০১৩ সালের ৯ জানুয়ারিতে ২৬ হাজার ১৯৩ টি সরকারি প্রাইমারি স্কুল জাতীয়করণ করেছে। কিন্তু ৬ হাজার ৮৪৮ টি স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসার মধ্যে ১ হাজার ৫১৯ টি স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসা শিক্ষকদের বেতন ভাতা ২০১৩ সালে শিক্ষামন্ত্রী ৫০০ টাকা থেকে ১ হাজার টাকায় উন্নীত করেছেন। বাকী ৫ হাজার ৩২৯ টি স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসা শিক্ষক এখনও বিনা বেতনে মানবেতর জীবনযাপন করে শিক্ষাদান করছেন।

সংগঠনের সভাপতি কাজী রুহুল আমীন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন, মহাসচিব সাগর আহমেদ শাহীন, সিনিয়র সহ-সভাপতি মোখলেছুর রহমান, প্রধান যুগ্ম মহাসচিব আবু মুসা ভূঁইয়া প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই