মেইন ম্যেনু

জাদুঘর থেকে সরানো হলো জিয়ার স্বাধীনতা পদক

জাতীয় জাদুঘর থেকে সরিয়ে নেয়া হলো বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের স্বাধীনতা পদক । বুধবার দুপুরে সরকারের পক্ষ থেকে পদকটি সরিয়ে ফেলে কর্তৃপক্ষ। এটি জাদুঘরের গুদাম ঘরে রক্ষিত ছিল। জাতীয় জাদুঘরের দায়িত্বে নিয়োজিত এক কর্মকর্তা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে ওই কর্মকর্তা বলেন, জাদুঘরের ভারপ্রাপ্ত পরিচালককে নিয়ে সচিবালয়ে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সেখানেই এ বিষয়ে জিয়ার স্বাধীনতা পদকসহ সরিয়ে ফেলার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

উল্লেখ্য, রাষ্ট্রের পক্ষ থেকে দেওয়া পদকগুলোর মধ্যে স্বাধীনতা পদক দেশের সর্বোচ্চ পদক। যেকোনো ক্ষেত্রে অসামান্য অবদান রাখার জন্য এই পদকে ভূষিত করা হয়।

২০০৩ সালে বিএনপি নেতৃত্বাধীন চারদলীয় জোট সরকার জিয়াউর রহমানকে মরণোত্তর স্বাধীনতা পদক দেয়। ওই সময় জাতীয় পুরস্কার সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকেই এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছিল। সে সময় পুরস্কারের মেডেল, সম্মাননাপত্র কোনো উত্তরাধিকারীকে না দিয়ে বাংলাদেশ জাদুঘরের একটি কর্নারে যথাযোগ্য মর্যাদায় সংরক্ষণ করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে তখন বলা হয়, এর মধ্যদিয়ে জিয়াকে বঙ্গবন্ধুর সমকক্ষ করার চেষ্টা করা হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই