মেইন ম্যেনু

জাপাকে কেউ কেউ মাজার বানাতে চায়

জাতীয় পার্টির (জাপা) কো-চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ (জিএম কাদের) বলেছেন, ‘একটি যুবককে (জাতীয় পার্টি) পানিতে ফেলে তলিয়ে দিয়ে হত্যা করার চেষ্টা করা হচ্ছে। আমাদের প্রতিপক্ষরা এই যুবককে হত্যা করে লালসালু পরিয়ে মাজার বানাতে চায়। তারা মাজার বানিয়ে পয়সা ইনকাম করতে চায়। কিন্তু সে চক্রান্ত সফল হবে না। তারুণ্যেদীপ্ত যুবককে আমরা হারিয়ে যেতে দেবো না।’

সোমবার রাজধানীর গুলশানে জাতীয় পার্টি আয়োজিত তৃণমূল নেতাদের সঙ্গে যৌথ সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন।

জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান বলেন, ‘ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে আমরা সাধারণ নির্বাচন হিসেবে দেখতে চাই না। পার্টির অবস্থান কি এবং সামনে কিরূপে আমরা কাজ করবো তার টেস্ট পরীক্ষা হবে এই নির্বাচন। তাই তারুণ্যের উদ্দীপনায় দলকে এগিয়ে নিতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।’

জিএম কাদের বলেন, ‘আমরা যাতে নিঃশ্বাস নিতে না পারি তার চক্রান্ত চলছে। সুস্থ ও সুষ্ঠু ধারার রাজনীতি করলে আমরা নিঃশ্বাস নিতে পারবো এবং তরুণ যুবক এগিয়ে যাবে। সামনে অপার সম্ভাবনায় রাজনীতির ফাঁকা মাঠ। এই মাঠ চাষ করতে হবে। ইউপি নির্বাচনে এর ফল কিছুটা পাবেন।’

কাদের বলেন, ‘এখন কঠিন সময় পার করছে জাতীয় পার্টি, তবে এটা খারাপ বা দুঃসময় নয়। বড় ধরনের লক্ষ্য অর্জনের জন্য প্রস্তুতি গ্রহণের সূবর্ণ সুযোগ। সহজেই বড় অর্জন স্বাভাবিক হতে পারে না। সামনে আরো কঠিন সময় আসতে পারে, তাই নতুন উদ্যোমে ধৈর্য্য সহকারে সামনে এগিয়ে যেতে হবে।’

পার্টির মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদার বলেন, ‘আগামী দুই মাসের মধ্যে জাতীয় পার্টি ঘুরে দাঁড়াবে এবং দেশের সর্ববৃহৎ রাজনৈতিক দলে পরিণত হবে। আর সেটা দলের আসন্ন কাউন্সিলের মাধ্যমেই শুরু হবে। সে লক্ষ্যেই আমরা কাজ করছি।’

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের সভাপতিত্বে এ যৌথ সভায় দলটির কেন্দ্রীয় ও তৃণমূলের নেতাকর্মীরা বক্তব্য রাখেন। বেলা ১১টায় এ সভা শুরু হয়ে বিকেল ৩টায় এক ঘণ্টার বিরতি দিয়ে ৪টায় আবার শুরু হয়।






মন্তব্য চালু নেই