মেইন ম্যেনু

জাপানে এটিএম জালিয়াত চক্রের ২ সদস্য আটক

জাপানে এটিএম বুথ থেকে বিপুল অংকের টাকা চুরিতে জড়িত সন্দেহভাজন দুই ব্যক্তিকে আটক করেছে দেশটির পুলিশ। ক্রেডিট কার্ড জালিয়াতির ইতিহাসে বড় এ ঘটনায় দেশজুড়ে সমন্বিত অভিযানের অংশ হিসেবে মঙ্গলবার ২৮ বছর বয়সী দুই যুবক টাতসু নাকাজোনো ও কাটস্যুয় সাহাসিকে আটক করা হয়।

কায়ডো সংবাদ সংস্থার বরাত দিয়ে বুধবার এ খবর দিয়ে টোকিও থেকে প্রকাশিত ইংরেজি দৈনিক জাপান টাইমস। তবে কোথা থেকে এ দুই যুবককে আটক করা হয়েছে তা জানায়নি পুলিশ।

বিভাগের একজন মুখপাত্র সংবাদ মাধ্যমকে বলেছে, এটিএম বুথে স্থাপিত গোপন ক্যামেরায় ধারণ করা ছবি দেখে এ যুবককে শনাক্ত করা হয়েছে। এটিএম বুথ থেকে সংগৃহীত তথ্য উদ্ধৃত করে পুলিশ জানায়, সাত ব্যাংকের বুথের মেশিন ব্যবহার করা হয়েছে এ জালিয়াতিতে।

আন্তর্জাতিক অপরাধী চক্রের যোগসাজশে এ জালিয়াতি সংগঠন হয়েছে। জাল ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করে এটিএম মেশিন থেকে এ মহাচুরিতে মালয়েশিয়ার একটি গ্রুপ জড়িত বলে ধারণা জাপান পুলিশের।

তদন্তকারী পুলিশ কর্মকর্তাদের ধারণা, দক্ষিণ আফ্রিকার একটি ব্যাংক থেকে ‘ফাঁস’ হয়ে যাওয়া ১৬শ’ অ্যাকাউন্টের তথ্য নিয়ে দুর্বৃত্ত চক্র জাল ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করে এই অর্থ তুলে নিয়েছে।

গত ১৫ মে রাজধানী টোকিওসহ দেশের ১৬ শহরে জাল ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করে ১ দশমিক ৪ বিলিয়ন ইয়েন তুলে নেয়া হয়, যা সংঘটনে যুক্ত ছিল ১০০ চোর। মাত্র দুই ঘণ্টার ব্যবধানে ১৪শ’ এটিএম বুথ থেকে বিপুল অংকের এ টাকা তুলে নেয় দুর্বৃত্তরা।

জাপানসহ বিশ্বের ২০ দেশের ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের জাল ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করে ২০১২ ও ২০১৩ সালে দু’দফায় ৪ দশমিক ৫ বিলিয়ন ইয়েন তুলে নিয়েছিল দুর্বৃত্তরা। তবে একসঙ্গে এবং দুই ঘণ্টার ব্যবধানে এ ধরনের টাকা চুরির মহোৎসব অতীতে কখনও জানা যায়নি।






মন্তব্য চালু নেই