মেইন ম্যেনু

জামায়াতের ইফতার শেষে পৌঁছলেন খালেদা জিয়া

ইফতারের সময় পার হওয়ার পর জামায়াতে ইসলামীর ইফতার মাহফিলে পৌঁছলেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁওয়ের বলরুমে জামায়াতে ইসলামী আয়োজিত এ ইফতার পার্টিতে প্রধান অতিথি হিসেবে সন্ধ্যা ৬টা ৫৫ মিনিটে তিনি উপস্থিত হন। এর মধ্যে ইফতারের সময় পার হয়ে যায়।

পরে আয়োজকদের পক্ষ থেকে জানানো হয় যানজটের কারণে ইফতার পার্টির প্রধান অতিথি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া সঠিক সময় পৌঁছতে পারেননি। তাই তিনি বক্তব্য রাখতে পারছেন না।

জামায়াতের ইসলামীর নায়েবে আমির অধ্যাপক মজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে ২০ দলীয় জোটের নেতারা ইফতার মাহফিলে যোগ দেন।

২০ দলীয় জোট শরিকদের মধ্যে লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এলডিপি) চেয়ারম্যান কর্নেল অলি আহমদ, ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান মাওলানা আব্দুল লতিফ নেজামী, কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান সৈয়দ মুহাম্মদ ইব্রাহীম, মহাসচিব এমএন. আমিনুর রহমান, জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টির (জাগপা) শফিউল আলম প্রধান, জাতীয় পার্টি (জাফর) মোস্তফা জামাল হয়দার, বাংলাদেশ ন্যাপ চেয়ার‌ম্যান জেবেল রহমান গানি, মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া, এনডিপির চেয়ারম্যান খন্দাকার গোলাম মুর্তজা, লেবার পার্টির চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, ন্যাপ ভাসানীর আযহারুল হক, ডেমোক্রেটিক লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফুদ্দিন আহমেদ মনি, সাম্যবাদী দলের সাঈদ আমম্মেদ প্রমুখ।

বিএনপির নেতাদের মধ্যে ইফতারে যোগ দেন— বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য এম কে আনোয়ার, নজরুল ইসলাম খান, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টার এ্যাডভোকেট খন্দাকার মাহবুব হোসেন, ফজলে এলাহী আকবর, ব্যারিস্টার হায়দার আলী, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. আসাদুজ্জামন রিপন, যুবদল সভাপতি সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মাসুদ আমমেদ তালুকদার, গণশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক সানা উল্লাহ মিয়া, মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক শিরিন সুলতানা প্রমুখ।

সাংবাদিকদের মধ্যে ইফতার মাহফিলে অংশ নেন— দৈনিক সংগ্রামের সম্পাদক আবুল আসাদ, কলামিস্ট সাদেক খান, শওকত মাহমুদ, রুহুল আমিন গাজী, এম এ আজীজ, সৈয়দ আবদাল আহমদ, আবদুল হাই শিকদার, জাহাঙ্গীর আলম প্রধান প্রমুখ। এছাড়া কবি আল মাহমুদ, শর্সিনার মেজো পীর শাহ আরিফ বিল্লাহ ইফতার মাহফিলে যোগ দেন।

জামায়াত নেতাদের মধ্যে নির্বাহী পরিষদের সদস্য মাওলানা এ এস এম আব্দুল হালীম, কর্মপরিষদের সদস্য মতিউর রহমান আকন্দ, ডা. রেদোয়ান উল্লাহ সাহেদী, মাওলানা জয়নুল আবেদিন প্রমুখ। এ ছাড়া আলী আহসান মুজাহিদের ছেলে আলী আহসান তাহকিক, আলী আহসান মাবরুর, দেলওয়ার হোসেন সাঈদীর ছেলে শামীম বিন সাঈদীসহ জামায়াতের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা যোগ দেন।






মন্তব্য চালু নেই