মেইন ম্যেনু

জামিন পেলেন প্রবীর সিকদার

ফরিদপুরে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে করা মামলায় সাংবাদিক প্রবীর সিকদারের জামিন মঞ্জুর করেছেন আদালত।

বুধবার ফরিদপুর ১ নম্বর আমলি আদালতের বিচারক হামিদুল ইসলাম এ রায় দেন।

এর আগে গতকাল একই আদালত প্রবীব সিকদারের তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

প্রবীর সিকদার নিউজপোর্টাল উত্তরাধিকার ৭১ নিউজ এবং বাংলা দৈনিক বাংলা ৭১ পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক।

প্রবীর সিকদারকে গত রোববার রাতে রাজধানীর ইন্দিরা রোডের নিজ কার্যালয় থেকে গ্রেফতার করে ফরিদপুরে নিয়ে যাওয়া হয়। ফরিদপুরে নিয়ে যাওয়ার পর থেকেই তাকে কোতোয়ালি থানায় রাখা হয়।

মঙ্গলবার প্রবীর সিকদারকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ। প্রবীর সিকদারের পক্ষে তার আইনজীবী আলী আশরাফ নান্নু রিমান্ড আবেদনের বিরোধিতা করে জামিন চান। জামিনের পক্ষে প্রবীর সিকদার নিজেও আদালতে বক্তব্য পেশ করেন। আদালত উভয় পক্ষের শুনানি শেষে জামিন আবেদন নাকচ করে তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

জীবনের শঙ্কা নিয়ে সম্প্রতি ফেসবুকে প্রবীর সিকদারের দেওয়া স্ট্যাটাসে স্থানীয় সরকারমন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেনের মর্যাদাহানি হয়েছে- এমন অভিযোগ এনে ফরিদপুরে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে মামলা করেন ফরিদপুরের এপিপি স্বপন পাল। রোববার রাতে তিনি মামলাটি দায়ের করেন। সেই মামলায় প্রবীর সিকদারকে গ্রেফতার দেখানো হয়।

মামলার আরজিতে বলা হয়, সম্প্রতি এক ফেসবুক স্ট্যাটাসে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন দাবি করে প্রবীর সিকদার বলেন, তার মৃত্যু হলে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন, বিতর্কিত ব্যবসায়ী মুসা বিন শমসের ও মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত যুদ্ধাপরাধী আবুল কালাম আযাদ ওরফে বাচ্চু রাজাকার দায়ী থাকবেন।






মন্তব্য চালু নেই