মেইন ম্যেনু

জিততে না পারলেও জিতেছেন তিনি

জিততে না পারলেও জিতেছেন তিনি। সদ্য সমাপ্ত পৌরসভা নির্বাচনে জিততে না পারলেও মানুষের ইতিবাচক মানসিকতাকে জিতেছেন তিনি। তিনি তৃতীয় লিঙ্গের (হিজড়া) দিথী। সাতক্ষীরার কলারোয়া পৌরসভার ৭নং, ৮নং (মুরারীকাটি) ও ৯নং (মির্জাপুর) ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত সংরক্ষিত ৩নং ওয়ার্ডের মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী হয়েছিলেন তিনি। তবে মাত্র ৬৬ ভোটে পরাজিত হন বিজয়ী প্রার্থীর খেকে।

সামান্য ভোটে হারলেও মানসিক ভাবে জয়ী বিশ্ব গণমাধ্যমে ঝড় তোলা এই তৃতীয় লিঙ্গের দিথী হিজড়া।

হাড্ডা-হাড্ডি লড়াই করে অবশেষে সামন্য ভোটের ব্যবধানে পরাজিত হলেন তৃতীয় লিঙ্গের (হিজড়া) প্রার্থী, বিশ্ব গণমাধ্যমে ঝড় তোলা সেই দিথী খাতুন।

কলারোয়া পৌরসভা নির্বাচনের ঘোষিত ফলাফল অনুযায়ী তৃতীয় লিঙ্গের দিথী খাতুন পেয়েছেন ১হাজার ৫’শ ৭৮ ভোট। মাত্র ৬৬টি ভোট বেশি পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন লুৎফুন নেছা। তিনি পেয়েছেন ১হাজার ৬’শ ৪৪ ভোট।

Hijra Diti, Kalaroaদিথী খাতুন জানালেন, সামন্য ভোটের ব্যবধানে তিনি হেরেছেন বটে, কিন্তু মানসিক ভাবে তিনি হারেননি, তিনি আজ জয়ী। বর্তমান সমাজ ব্যবস্থায় তিনি তৃতীয় লিঙ্গের মানুষ হয়েও তার এলাকার মানুষ যেভাবে তাকে সমর্থন, উৎসাহ জুগিয়েছেন তাতে তিনি ভীষন খুশি। সারা জীবন তিনি মনে রাখবেন এলাকার মানুষদেরকে। হতদরিদ্র ও অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে তিনি কাজ করবেন। বললেন, মানুষের সেবায় উৎসার্গ করবেন নিজেকে।

দিথীদিথী খাতুন তৃতীয় লিঙ্গের মানুষ হয়েও এতো মানুষের সমর্থন পাবেন তা জেনে শুধু দিথী নয়, তার সহগোত্রীয় মানুষেরাও বেজায় খুশি। তারাও নিজেদেরকে নিয়ে নতুন করে ভাবতে শুরু করেছে। তাদেরকে নিয়ে যে অপপ্রচার রয়েছে, তা থেকে নিজেদেরকে মুক্ত করতে চাইছেন তারা।

Kalaroa- Hijra Ditiপ্রসঙ্গত, পৌর নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ায় দিথী খাতুনকে নিয়ে শুধু দেশে নয়, বিবিসিসহ বিশ্ব গনমাধ্যমে ঝড় উঠেছিল। সবার নজর ছিল দিথীর দিকে। প্রত্যাশা ছিল শেষ লড়ায়ে জয়ী হবেন তিনি। ভোটের জয়-পরাজয়ের ফলাফলের চেয়ে গণমানুষের ইতিবাচক মানসিকতাতে জয় করেছেন তিনি। আর তাই হিজড়া হয়েও জিতেছেন তৃতীয় লিঙ্গের দিথী।

প্রমান করলেন ‘মানুষের সবচেয়ে বড় পরিচয় সে মানুষ, আর মানুষ মানুষের জন্য। সৃষ্টিকর্তার সৃষ্টিরূপে কোন মানুষের মাঝেই শ্রেণিবিভেদ থাকতে পারে না।’

উল্লেখ্য, ৩০ডিসেম্বর ২০১৫ তারিখে সদ্য সমাপ্ত কলারোয়া পৌরসভা নির্বাচনে সংরক্ষিত ৩নং ওয়ার্ড-এ (৭,৮ও৯নং ওয়ার্ড) লুৎফুন নেছা আঙ্গুর প্রতীক নিয়ে ১হাজার ৬’শ ৪৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি তৃতীয় লিঙ্গের দিথী (হিজড়া) চুড়ি প্রতীক নিয়ে ১হাজার ৫’শ ৭৮ ভোট এবং অপর প্রার্থী শাহানাজ খাতুন কাঁচি প্রতীক নিয়ে ৯০৯ ভোট পেয়ে পরাজিত হন।






মন্তব্য চালু নেই