মেইন ম্যেনু

জিপিএ ৫ পাওয়ায় ফেনীর অনিক ও হৃদয়কে প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন

এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ ৫ পাওয়ায় ফেনী সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র মিনহাজুল ইসলাম অনিক এবং শাহরিয়ার হৃদয়কে অভিনন্দন জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা বার্তা পেয়ে আবেগাপ্লুত অনিক, হৃদয় এবং তাদের পরিবার প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৫ সালের ৫ জানুয়ারিতে বিএনপি জামায়াতের অবরোধ ও হরতাল চলাকালে পেট্রলবোমার সহিংসতার শিকার হয়েছিলেন অনিক ও হৃদয়। ওই সময় তারা ছিল এসএসসি পরীক্ষার্থী। কোচিং থেকে বাসায় ফেরার পথে শিকার হন পেট্রলবোমার। চোখে মাথায় মারাত্মক আঘাত পায় অনিক ও হৃদয়। পুরো পরিবার এক অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়ে। একদিকে সামনে এসএসসি পরীক্ষা, অন্যদিকে চিকিৎসার ব্যয়ভার ।

এ সময় এ দুটি পরিবারের মধ্যে আলোকবর্তিকা হয়ে আসেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জামায়াত বিএনপির সহিংসতার শিকার আরো হাজার হাজার অসহায় পরিবারের মত তাদের চিকিৎসার ব্যয়ভারও নেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে তাদের চিকিৎসার পুরো বিষয়টি তদারকি করেন তার কার্যালয়ের পরিচালক ডা. জুলফিকার লেনিন । তিনি জানান, প্রথমে তাদেরকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, পরে চক্ষু বিজ্ঞান ইন্সটিটিউট এবং এরপর মাদ্রাজের শঙ্কর নেত্রালয়ে চিকিৎসা করানো হয়। চিকিৎসার জন্য পরপর তিনবার মাদ্রাজের শঙ্কর নেত্রালয়ে পাঠান প্রধানমন্ত্রী ।

আহত থাকার কারণে ২০১৫ সালে আর তাদের এসএসসি পরীক্ষা দেয়া হয়নি। এইবার তারা দুজনই এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেন এবং জিপিএ ৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হন। বৃহস্পতিবার সকালে হৃদয় অনিক এবং তাদের পরিবারের সঙ্গে কথা বলেন ডা. জুলফিকার লেনিন । তিনি প্রধানমন্ত্রীর খুশি হওয়ার সংবাদ ও শুভেচ্ছা বার্তা তাদের কাছে পৌঁছে দেন।






মন্তব্য চালু নেই